পায়ে পচন ধরেছে বিধবা আবিরন বিবির

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি মানিকগঞ্জ
প্রকাশিত: ১২:৫৫ পিএম, ১৩ অক্টোবর ২০১৮

টাকার অভাবে চিকিৎসা হচ্ছে না বিধবা আবিরন বিবির (৫০)। তার ডানপায়ে পচন ধরে চারপাশে দুগন্ধ ছড়িয়ে পড়েছে। আবিরন বিবির গ্রামের বাড়ি মানিকগঞ্জের সাটুরিয়া উপজেলার বরাঈদ ইউনিয়নের সাভার (উত্তরপাড়া)। ভাঙাচুরা একটি ঘরে একাই থাকেন। অসুস্থ হওয়ার পর থেকে ঠিকমতো খাবারও জুটছে না।

আবিরন বিবি জানান, ৫-৬ মাস আগে তার ডান পায়ে চুলকানি শুরু হয়। এরপর পা ফুলে যায়। কিছুদিন হলো পায়ে পচন ধরেছে। ভেতরে পোকাও ধরেছে। টাকার অভাবে তিনি কোনো চিকিৎসকের কাছে যেতে পারেননি। তাছাড়া নেয়ার মতো কোনো লোকজনও নেই। তাই বিনা চিকিৎসায় ধুকছেন অসহায় এই নারী।

বিধবা আবিরনের রয়েছে দীর্ঘ এক কষ্টের ইতিহাস। তার স্বামী আব্দুল লতিফ দ্বিতীয় বিয়ে করার পর থেকেই একমাত্র ছেলে হাবিবুর রহমানকে নিয়ে ২০ বছর আগে মা-বাবার কাছে চলে আসেন। এক যুগ আগে স্বামী মারা যান। এর বছরখানেক পর মারা যান নিজের মা-বাবা। ছেলে হাবিবুর বউ নিয়ে মানিকগঞ্জ শহরে থাকেন। রিকশা চালান। তাকে কোনো ভরণ-পোষণ দেন না। মায়ের ৪ শতাংশ জমির ওপর ভাঙাচুড়া একটি টিনের ঘরে একাই বসবাস করেন তিনি। সুস্থ থাকাবস্থায় নারী কৃষিশ্রমিক হিসেবে কাজ করতেন। কিন্তু বর্তমানে কাজ তো দূরে থাক হাটাচলাই করতে পারেন না। ফলে চরম কষ্টে তার দিন কাটছে। খাবারের জন্য চেয়ে থাকতে হচ্ছে প্রতিবেশিদের দিকে। তারাই চাল অথবা ভাত দিয়ে গেলে সেটা খেয়েই কোনা রকম বেঁচে আছেন তিনি।

স্থানীয় এক সাংবাদিক আব্দুস সালাম সফিক জানান, কয়েকদিন আগে ওই নারীর সঙ্গে কথা বলেছেন তিনি। তার পায়ের অবস্থা খুবই খারাপ। তার দ্রুত চিকিৎসার প্রয়োজন। কিন্তু টাকার অভাবে কোনো চিকিৎসা করাতে পারছেন না। ঠিকমতো খাবারও জুটছে না তার।

বি.এম খোরশেদ/আরএ/এমএস

আপনার মতামত লিখুন :