পালিয়ে এসে আবারও ধর্ষণ করল ব্যাংক কর্মকর্তা

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি দিনাজপুর
প্রকাশিত: ০৯:৩৩ পিএম, ১২ নভেম্বর ২০১৮
ফাইল ছবি

দিনাজপুরে ৮ বছরের এক শিশুকে ধর্ষণ করে ধরা পড়ার পর পালিয়ে এসে আবারও সেই শিশুকে ধর্ষণ করেছে এক ব্যাংক কর্মকর্তা।

এ ঘটনায় মামলা দায়েরের পর অভিযুক্ত ব্যাংক কর্মকর্তা আব্দুল লতিফকে সোমবার বিকেলে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। ধর্ষণের শিকার ৮ বছরের শিশুকে দিনাজপুর এম আব্দুর রহিম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

শুক্রবার (৯ নভেম্বর) বিকেলে দিনাজপুর সদর উপজেলার ৬নং আউলিয়াপুর ইউনিয়নের শিকদারহাট হাজিপাড়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। অভিযুক্ত আব্দুল লতিফ ৭নং উপশহর এলাকার আব্দুল জব্বারের ছেলে ও চিরিরবন্দর উপজেলার অগ্রণী ব্যাংক আমতলী শাখার কর্মকর্তা।

পুলিশ ও মামলা সূত্রে জানা যায়, শুক্রবার বিকেলে বাড়িতে কেউ না থাকার সুযোগে শিকদারহাট এলাকার এক বাড়িতে ঢুকে ৮ বছরের শিশুকে ধর্ষণ করে আব্দুল লতিফ।

এ সময় শিশুর মা ও এলাকাবাসী এগিয়ে এসে তাকে হাতেনাতে ধরে ফেলে। সেইসঙ্গে গুরুতর অবস্থায় শিশুটিকে দিনাজপুর এম আব্দুর রহিম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

এ ঘটনায় দিনাজপুর কোতোয়ালি থানায় মামলা করেন শিশুর মা। মামলায় তিনি উল্লেখ করেন, এর আগেও আব্দুল লতিফ তার মেয়েকে ধর্ষণ করে পালিয়ে যায়।

শুক্রবার ধর্ষণের সময় তাকে হাতেনাতে ধরা হয়। পরে তাকে পুলিশে দেয়ার কথা বলে বাড়িতে নিয়ে যায় প্রতিবেশী কোবাদ আলী। কিন্তু কোবাদ আলীর বাড়ি থেকেও পালিয়ে যায় আব্দুল লতিফ।

ধর্ষণ করে পালিয়ে যাওয়ার পর আবার ফিরে এসে ধর্ষণের অভিযোগ এনে শনিবার শিশুর মা মামলা করলে অভিযান চালিয়ে আব্দুল লতিফকে গ্রেফতার করে পুলিশ।

বিষয়টি নিশ্চিত করে দিনাজপুর কোতোয়ালি থানা পুলিশের পরিদর্শক (অপারেশন) বজলুর রশিদ বলেন, নির্যাতিত শিশুটি বর্তমানে দিনাজপুর এম আব্দুর রহিম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। শিশুর মায়ের মামলার প্রেক্ষিতে ধর্ষক আব্দুল লতিফকে গ্রেফতার করা হয়েছে। ডাক্তারি পরীক্ষার প্রতিবেদন পাওয়ার পর তার বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।

এমদাদুল হক মিলন/এএম/এমএস

আপনার মতামত লিখুন :