এবার নির্বাচনে অংশ নিচ্ছে রাজাকারের সন্তানরা : আমু

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি ঝালকাঠি
প্রকাশিত: ০৭:৪১ পিএম, ০৮ ডিসেম্বর ২০১৮

শিল্পমন্ত্রী আমির হোসেন আমু বলেছেন, রাজাকারের সন্তানরা এবার জাতীয় সংসদ নির্বাচনে অংশ নিচ্ছে। সেই রাজাকার ও তার প্রজন্মকে দেশের স্বাধীনতা রক্ষার্থে প্রতিহত করবে মুক্তিযোদ্ধারা।

তিনি বলেন, আগামী ৩০ ডিসেম্বর স্বাধীনতাবিরোধী রাজাকার এবং রাজাকার প্রজন্মকে সঠিক জবাব দেবে মুক্তিযুদ্ধের সপক্ষের শক্তি, মুক্তিযোদ্ধা ও মুক্তিযোদ্ধা প্রজন্ম।

৮ ডিসেম্বর ঝালকাঠি হানাদারমুক্ত দিবস উপলক্ষে আয়োজিত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন তিনি। শনিবার ঝালকাঠি জেলা শিল্পকলা একাডেমি হলরুমে এ আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়।

আমির হোসেন আমু বলেন, দেশ স্বাধীনের আগে পূর্বপাকিস্তানের বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের দায়িত্ব পালনকারী ঝালকাঠির এক ব্যক্তি এই এলাকায় অগ্নিকাণ্ডের দিক নির্দেশনা দিয়েছিল। পরে তিনি সৌদিআরবে গিয়ে আশ্রয় নেন। স্বাধীনতার পর দেশে আসতে চাইলেও দেশ তাকে গ্রহণ করেনি। সেখানে তার ইন্তেকাল হয়। দাফনের জন্য দেশের মাটিও তার ভাগ্যে জোটেনি। এবার নির্বাচনে অংশ নিচ্ছে তার উত্তরসূরীরা।

শিল্পমন্ত্রী বলেন, স্বাধীনতার পর বঙ্গবন্ধু হত্যার পরবর্তী সময় থেকে ২০০৬ সাল পর্যন্ত দেশে উল্লেখযোগ্য কোনো উন্নয়ন হয়নি। কারণ ওই সময়ে যারা দেশ পরিচালনার দায়িত্বে ছিল তাদের মধ্যে দেশপ্রেম ছিল না। যাদের মধ্যে দেশপ্রেম নেই তারা দেশের উন্নয়ন করতে পারে না। ২০০৯ সালে বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনা দ্বিতীয়বারে দেশ পরিচালনার দায়িত্ব গ্রহণ করে ১০ বছরের মধ্যে বাংলাদেশকে নিম্নআয়ের দেশ থেকে মধ্যমআয়ের দেশে রূপান্তর করেছেন। তাই দেশের উন্নয়নের স্বার্থে স্বাধীনতার সপক্ষের নৌকা প্রতীকে ভোট দিন।

বাসন্ডা ইউপির চেয়ারম্যান মোবারক হোসেন মল্লিকের সভাপতিত্বে এতে বিশেষ অতিথি ছিলেন- জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি সরদার মো. শাহ আলম, সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট খান সাইফুল্লাহ পনির, পৌর মেয়র লিয়াকত আলী তালুকদার, জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি মুক্তিযোদ্ধা সরদার শামসুল হক আক্কাস, মো. সিদ্দিকুর রহমান ও আরিফুর রহমান খান প্রমুখ।

মো. আতিকুর রহমান/এএম/এমএস

আপনার মতামত লিখুন :