সন্তানের সামনেই আমাকে ছুরিকাঘাত করে তারা

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি নারায়ণগঞ্জ
প্রকাশিত: ০৯:৩৬ পিএম, ১৯ জানুয়ারি ২০১৯

নারায়ণগঞ্জ সদরের ফতুল্লায় চাঁদার দাবিতে বিমল সরকার নামে এক ব্যবসায়ীকে প্রকাশ্যে ধরে নিয়ে মারধর করে ছুরিকাঘাতের অভিযোগ পাওয়া গেছে। খবর পেয়ে অপহৃত ব্যবসায়ীকে উদ্ধার করেছে পুলিশ।

শনিবার দুপুর ১২টার দিকে ফতুল্লার লামাপাড়া দরগাহ মসজিদ এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। ব্যবসায়ী বিমল সরকার কুমিল্লার বড়ুয়া থানার কড়াইয়া গ্রামের মৃত. মধুসুদন সরকারের ছেলে।

এ ঘটনায় বিকেলে বিমল সরকারের স্ত্রী মনি রানী চারজনের নাম উল্লেখ ও অজ্ঞাত পাঁচজনের বিরুদ্ধে ফতুল্লা মডেল থানায় মামলা করেছেন।

বিমল সরকার বলেন, আমি গার্মেন্টে তৈরি পোশাক কেনাবেচা করি। গত বৃহস্পতিবার বিকেলে লামাপাড়া দরগাহ মসজিদ সংলগ্ন এলাকার মুরাদ, আল আমিন, সুজন ও সুজয় নামে চারজন গার্মেন্টে তৈরি পোশাক বিক্রি করা হবে বলে আমাকে ডেকে নিয়ে যায়। সেখানে তাদের সঙ্গে অজ্ঞাত ৪-৫ জন ছিল। ওই সময় আমাকে আটক করে ৬০ হাজার টাকা চাঁদা দাবি করে তারা। ফতুল্লায় ব্যবসা করতে হলে চাঁদা দিতে হবে বলে জানায় তারা। ওই সময় তাদের কাছে সময় চেয়ে চলে আসি আমি।

তিনি আরও বলেন, শনিবার দুপুর ১২টায় আমাকে তুলে নিয়ে যায় তারা। এ সময় মারধর করে টাকা আনতে বলা হয়। তখন আমার স্ত্রী মনি রানীর ফোন নম্বর দিলে ৬০ হাজার টাকা দাবি করে। আমার স্ত্রী দুই শিশু ছেলেকে নিয়ে আমাকে ছাড়িয়ে আনতে যায়। তখন আমার স্ত্রী ও সন্তানের সামনেই আমাকে ছুরিকাঘাত করে তারা।

এ সময় আমার স্ত্রী আমাকে রক্ষার জন্য এগিয়ে আসলে তাকে মারধর করে টাকা আনার জন্য তাড়িয়ে দেয়। পরে আমার স্ত্রী পুলিশ নিয়ে আমাকে উদ্ধার করে। আমার পকেট থেকে ২০ হাজার টাকা লুটে নিয়েছে তারা।

এ বিষয়ে ফতুল্লা মডেল থানা পুলিশের ওসি মঞ্জুর কাদের বলেন, ওই ব্যবসায়ীকে উদ্ধার করা হয়েছে। বিষয়টির তদন্ত চলছে। সন্ত্রাসীদের গ্রেফতার করা হবে।

শাহাদাত/এএম/জেআইএম