বান্দরবান সীমান্ত বন্ধ করল বিজিবি

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি বান্দরবান
প্রকাশিত: ১২:১১ পিএম, ০৮ ফেব্রুয়ারি ২০১৯
ফাইল ছবি

বান্দরবানে মিয়ানমার সীমান্তে চলাচলের সম্ভাব্য সব পথ বন্ধ করে দিয়েছে বাংলাদেশের সীমান্তরক্ষী বাহিনী বিজিবি। কয়েক দিন ধরে মিয়ানমারের নাগরিকদের অনুপ্রবেশের চেষ্টার আশঙ্কায় এই ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে।

বিজিবির বান্দরবান সেক্টর কমান্ডার জহিরুল হক খান বলেছেন, মিয়ানমার সেনাবাহিনী স্থানীয় বিদ্রোহী গোষ্ঠীর বিরুদ্ধে ব্যাপক অভিযান চালাচ্ছে বলে শোনা গেছে। এ অবস্থায় রুমা, থানচি ও আলীকদম উপজেলার সীমান্ত দিয়ে মিয়ানমারের নাগরিকদের অনুপ্রবেশের আশঙ্কায় সীমান্ত সিল করে দেয়া হয়েছে। কোনো বিদেশি নাগরিককে অনুপ্রবেশ করতে দেয়া হবে না।

বিজিবির দায়িত্বশীল কর্মকর্তারা বলছেন, বিভিন্ন সূত্রে মিয়ানমারের কিছু নাগরিকের রুমা উপজেলার ৭২ নম্বার পিলারের কাছ দিয়ে বাংলাদেশে অনুপ্রবেশের তথ্য পেয়ে মঙ্গলবার বিজিবির দুটি টহল দল সেখানে যায়।

রুমা উপজেলা প্রশাসন সূত্রে জানা যায়, গত শনিবার মিয়ানমারের চিন রাজ্য থেকে ১৬৩ জন বৌদ্ধ শরণার্থী বান্দরবানের রুমা উপজেলার রেমাক্রী প্রাংসা ইউনিয়নের চাইক্ষাং সীমান্তের শূন্যরেখায় (নোম্যান্স ল্যান্ড) অবস্থান নেয়ার পর বাংলাদেশে অনুপ্রবেশ করে। গত বুধবার আরও ৪০ পরিবার সেখানে অনুপ্রবেশ করে। এ নিয়ে অনুপ্রবেশের সংখ্যা দাঁড়ায় ২০৩ জনে।

প্রসঙ্গত, গত ডিসেম্বর থেকে মিয়ানমারের রাখাইন ও চিন রাজ্যে শক্তিশালী বিচ্ছিন্নতাবাদী গ্রুপ আরাকান আর্মি দেশটির বিজিপি ও সেনাবাহিনীর বেশ কয়েকটি স্থাপনায় হামলা করে। এরপর থেকে সেনাবাহিনীর সঙ্গে আরাকান আর্মির ব্যাপক সংঘর্ষ চলছে। আর ওই সংঘর্ষের জেরে মিয়ানমারের সেনাবাহিনীর সদস্যরা সীমান্তবর্তী এলাকায় বসবাসরত বাসিন্দাদের ঘরে ব্যাপক তল্লাশি চালাচ্ছে।

এছাড়াও ২০১৭ সালের আগস্টে মিয়ানমারের রাখাইন রাজ্যে নিরাপত্তা বাহিনীর সঙ্গে রোহিঙ্গাদের ব্যাপক সংঘর্ষের পর সেখান থেকে ১০ লক্ষাধিক রোহিঙ্গা বাংলাদেশে পালিয়ে এসে আশ্রয় নেয়। এবার মিয়ানমারের অন্যান্য সম্প্রদায়ের লোকজনও বাংলাদেশে শরণার্থী হয়ে আসার আশঙ্কা করছেন বিশ্লেষকরা।

সৈকত দাশ/এফএ/এমএস

আপনার মতামত লিখুন :