আগে নদী ছিল ২৪ হাজার বর্গ কি.মি এখন ৩ হাজার বর্গ কি.মিটার

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি মাদারীপুর
প্রকাশিত: ০৫:০৭ পিএম, ১২ এপ্রিল ২০১৯

জাতীয় নদী রক্ষা কমিশনের চেয়ারম্যান ড. মিজানুর রহমান হাওলাদার বলেন, ঢাকা, চট্টগ্রাম, টঙ্গি ও নারায়ণগঞ্জসহ বিভিন্ন এলাকায় অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ শুরু হয়েছে। ক্ষমতাধর ব্যক্তিরাও অবৈধ উচ্ছেদ থেকে রক্ষা পাচ্ছে না। আমরা কাউকেই ছাড় দেব না। যেকোনো মূল্যে দেশের নদীকে বাঁচাতে হবে। নদী বাঁচলেই মানুষ বাঁচবে। নদীর জায়গা আগের তুলনায় এখন ৮ ভাগের তিন ভাগে এসে পৌঁছেছে। আগে দেশে নদীর জায়গা ছিল প্রায় ২৪ হাজার বর্গ কিলোমিটার সেখানে এখন নদী পাওয়া যাচ্ছে মাত্র ৩ হাজার বর্গ কিলোমিটার।

দেশব্যাপী নদ-নদীর তীর ঘেঁষে অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ অভিযানে জাতীয় নদী রক্ষা কমিশনের উদ্যোগে দেশের বিভিন্ন জেলা ও উপজেলার নদ-নদী পরির্শন শুরু করেছেন জাতীয় নদী রক্ষা কমিশন। শুক্রবার দুপুরে জাতীয় নদী রক্ষা কমিশনের চেয়ারম্যান ড. মিজানুর রহমান হাওলাদার মাদারীপুরের শিবচরের বিল পদ্মা ও ময়নাকাটা নদীর বিভিন্ন এলাকা পরিদর্শন করেন।

এ সময় ময়নাকাটা নদীর তীরে অবৈধ স্থাপনা নির্মাণ করা দেখে এবং বিআইডব্লিউটিএর অর্থায়নে অপরিকল্পিত ময়নাকাটা নদীর ড্রেজিং কার্যক্রম দেখে তিনি চরম ক্ষোভ প্রকাশ করেন। দ্রুত অপিরিকল্পিত ড্রেজিং বন্ধ রাখার প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাকে নির্দেশ দেন। নদীর তীরে অবৈধ স্থাপনা নির্মাণ করা দেখে তিনি চরম ক্ষোভ প্রকাশ করে অবৈধ স্থাপনা ভেঙে ফেলার জন্য শিবচর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও সহকারী কমিশনারকে (ভূমি) তাৎক্ষণিক নির্দেশ দেন।

Madaripur-Shibchar

জাতীয় নদী রক্ষা কমিশনের চেয়ারম্যান ড.মিজানুর রহমান হাওলাদার আরও বলেন, অতিদ্রুত আমরা মাদারীপুরসহ দেশের দক্ষিঞ্চালের বিভিন্ন জেলায় বিশেষ টাস্কফোর্স গঠন করে নদীর তীরের নির্মিত অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ অভিযান শুরু করবো। এর আগে জেলা প্রশাসন ও উপজেলা প্রশাসন এসএ খতিয়ান মতে সার্ভেয়ার দিয়ে নদীর সীমানা নির্ধারণ করবো।

শুক্রবার সকালে মাদারীপুরের শিবচর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কার্যালয়ে জাতীয় নদী রক্ষা কমিশনের চেয়ারম্যান ড. মিজানুর রহমান হাওলাদারের উপস্থিতিতে এক জরুরি সভা অনুষ্ঠিত হয়। আগামী দিনে নদীর পানির প্রয়োজনীয়তা রক্ষায় দিক নির্দেশনা তুলে ধরেন। সভায় উপস্থিত ছিলেন শিবচর উপজেলা চেয়ারম্যান রেজাউল করিম তালুকদার, সাবেক পৌর প্রশাসক মোসলেম উদ্দিন খান, শিবচর পৌরসভার মেয়র আওলাদ হোসেন খান, শিবচর উজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আসাদুজ্জামান, শিবচর উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) আল নোমান, শিবচর প্রেস ক্লাবের সভাপতি এ কে এম নাসিরুল হক, সাধারণ সম্পাদক প্রদ্যুত কুমার সরকার প্রমুখ।

এ কে এম নাসিরুল হক/এমএএস/পিআর

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]