মাদরাসাছাত্রীসহ পরিবারের ৪ জনকে কুপিয়ে জখম

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি মাগুরা
প্রকাশিত: ১২:৪৯ এএম, ২৬ এপ্রিল ২০১৯

মাগুরার শালিখা উপজলোর শতখালী এলাকায় খাদিজা নামে এক মাদরাসাছাত্রীসহ তার পরিবারের চারজনকে কুপিয়েছে নিকটাত্মীয় ও প্রতিবেশীরা। জমিজমাসংক্রান্ত বিরোধের জেরে খাদিজা, তার ভাই ও বাবা-মাকে কুপিয়ে জখম করে তারা। গুরুতর জখম অবস্থায় তাদের মাগুরা সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

হাসপাতালে চিকিৎসাধীন শতখালী দাখিল মাদরাসার অষ্টম শ্রেণির ছাত্রী খাদিজা জানান, শতখালী দক্ষিণপাড়ায় তাদের প্রতিবেশী ও সম্পর্কে ফুফা ফজলু মোল্লার (৫৫) সঙ্গে কিছুদিন যাবত জমিজমা সংক্রান্ত বিষয়ে বিরোধ চলছিল। এরই জেরে বৃহস্পতিবার সকালে তার মা ছুটু বিবির (৪৮) সঙ্গে ফজলু মোল্লার স্ত্রী কতবানুর (৪০) সামান্য কথাকাটাকাটি হয়।

একপর্যায়ে ফজলু মোল্লা ও তার ছেলে শরীফ মোল্লা (৩৫) দেশীয় ধারাল অস্ত্রসহ এসে তার বাবা মতলেব মোল্লা (৬০) ও মায়ের ওপর চড়াও হয়। এ সময় মা-বাবাকে বাঁচাতে সে ও তার ভাই মারুফ (২০) সামনে এগিয়ে গেলে তাদেরও কুপিয়ে জখম করে তারা। হামলায় খাদিজা ও তার ভাইয়ের মাথায়, মায়ের হাতেসহ ধারাল অস্ত্রের কোপে তার বাবার হাতের তিনটি আঙুল প্রায় বিচ্ছিন্ন হয়ে গেছে।

খাদিজা আরও অভিযোগ করে বলেন, তার ভাইকে হত্যা ও বসতভিটা থেকে তাদের উচ্ছেদের উদ্দেশেই পরিবারের সকলের ওপর এমন নির্মম হামলা চালানো হয়েছে। প্রায়সময় তাদের হত্যা ও উচ্ছেদের হুমকি দেন ফজলু মোল্লার পরিবার। পরে প্রতিবেশীরা গুরুতর আহত অবস্থায় তাদের উদ্ধার করে মগুরা সদর হাসপাতালে ভর্তি করেন।

পরিবারের সকলে হাসপাতালে ভর্তি থাকায় এ বিষয়ে মামলা করা হয়নি। তবে মামলার প্রস্তুতি নিচ্ছেন বলে জানান খাদিজা।

আরাফাত হোসেন/বিএ

আপনার মতামত লিখুন :