৫ মাস পর জানা গেল শিশুটি ধর্ষণের শিকার

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি শেরপুর
প্রকাশিত: ০৮:৩৫ পিএম, ২৭ এপ্রিল ২০১৯
ধর্ষণের অভিযোগে গ্রেফতার আতিকুর রহমান

শেরপুরের নকলার চন্দ্রকোণা এলাকায় তৃতীয় শ্রেণির এক ছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগে আতিকুর রহমান রানা (১৯) নামে এক যুবককে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

ধর্ষণের ফলে ওই স্কুলছাত্রী অন্তঃসত্ত্বা হয়ে পড়ায় পরিবারের অভিযোগের ভিত্তিতে গতকাল শুক্রবার রাতে রানাকে নকলা থানা পুলিশ গ্রেফতার করে। তিনি নকলার চন্দ্রকোণা ইউনিয়নের বালিয়াদী গ্রামের চাঁন মিয়ার ছেলে।

শনিবার দুপুরে তাকে আদালতে সোপর্দ করলে বিচারিক হাকিম জেলা কারাগারে প্রেরণের নির্দেশ দেন। অন্তঃসত্ত্বা ওই স্কুলছাত্রীকে ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য জেলা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

নকলা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কাজী শাহনেওয়াজ ধর্ষণ মামলার বিষয়টি নিশ্চিত করেন। তিনি জানান, নকলার চন্দ্রকোণা ইউনিয়নের বালিয়াদী গ্রামের যুবক আতিকুর রহমান রানা প্রতিবেশী তৃতীয় শ্রেণির ওই ছাত্রীকে লোভ ও ভয় দেখিয়ে বেশ কয়েকবার ধর্ষণ করে। এতে শিশুশিক্ষার্থী পাঁচ মাসের অন্তঃসত্ত্বা হয়ে পড়ে।

বিষয়টি জানাজানি হলে শুক্রবার রাতে স্কুলছাত্রীর দাদা বাদী হয়ে নকলা থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা দায়ের করেন। পুলিশ অভিযান চালিয়ে রাতেই ধর্ষক আতিকুর রহমান রানাকে গ্রেফতার করে। শনিবার দুপুরে তাকে আদালতে প্রেরণ করা হয়।

হাকিম বাবুল/এমএআর/এমকেএইচ

আপনার মতামত লিখুন :