নির্মাণাধীন ভবন থেকে একে একে ১৩ আসামি গ্রেফতার

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি চুয়াডাঙ্গা
প্রকাশিত: ১১:৪১ এএম, ২০ মে ২০১৯

চুয়াডাঙ্গা শহরের শান্তিপাড়া এলাকার নির্মাণাধীন একটি চারতলা ভবন থেকে হত্যা, চাঁদাবাজি ও ডাকাতিসহ বিভিন্ন মামলার ১৩ জন আসামিকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। রোববার রাত সাড়ে ১১টার দিকে দুই ঘণ্টার শ্বাসরুদ্ধকর অভিযান শেষে তাদের গ্রেফতার করা হয়।

গ্রেফতাররা হলেন- শহরের পৌর এলাকার শান্তিপাড়ার ইউসুফ আলীর ছেলে শীর্ষ সন্ত্রাসী আকাশ (১৯), সানোয়ার হোসেনের ছেলে রামিম (১৯), মৃত আলী রেজার ছেলে গোলাম মোস্তফা মদন (৪৭), গোলাম রসুল টিটু (৪২), মৃত আমির আলীর ছেলে জহির উদ্দীন বাদল (৪৫), জালাল উদ্দীনের ছেলে বাহাউদ্দীন (১৮), ইউনুস আলীল ছেলে ইভন (১৯), তুরাপ আলীর ছেলে কাজল (২৭), জাহাঙ্গীর আলীর ছেলে পিয়াস (২০), একই এলাকার ছোট জাহাঙ্গীরের ছেলে আশরাফ (২২), পার্শ্ববর্তী মুসলিমপাড়ার আপান শেখের ছেলে আলামিন (২৩), গুলশানপাড়ার আনু শেখের ছেলে কালু শেখ (৩৫) ও পলাশপাড়ার বাবর আলীর ছেলে লিটন (২৭)।

চুয়াডাঙ্গা সদর থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবু জিহাদ ফকরুল আলম খাঁন জানান, শান্তিপাড়া এলাকার নির্মাণাধীন চারতলা একটি ভবনে ১০/১৫ জন দুর্বৃত্ত গোপনে অবস্থান করছে- এমন খবর পেয়ে পুলিশের একটি দল রাত সাড়ে ১১টার দিকে বাড়িটি ঘেরাও করে। বাড়ির ভেতরে দুর্বৃত্তদের উপস্থিতি টের পেয়ে সেখানে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়। এরপর অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. কলিমুল্লাহর নেতৃত্বে বিপুল সংখ্যক পুলিশ অভিযান শুরু করে। এ সময় চারতলা ভবনের বিভিন্ন কক্ষ ও টয়লেট থেকে একে একে ১৩ জন গ্রেফতার করা হয়।

চুয়াডাঙ্গার পুলিশ সুপার মাহবুবুর রহমান জানান, গ্রেফতারদের মধ্যে আকাশ কেদারগঞ্জ এলাকার ব্যবসায়ী গোলাম হত্যা মামলার এক নম্বর আসামি। রামিম, টিটু ও বাদলও চিহ্নিত সন্ত্রাসী। তাদের বিরুদ্ধে ডাকাতি-চাঁদাবাজিসহ বেশ কয়েকটি মামলা রয়েছে। বাকি ৯ জনের নামেও মাদকের মামলা আছে। গ্রেফতাররা শহরে বড় ধরনের সন্ত্রাসী কার্যক্রম বা ডাকাতির উদ্দেশ্যে ওই চারতলা ভবনে গোপনে বৈঠক করছিল বলেও তিনি জানান।

সালাউদ্দীন কাজল/আরএআর/জেআইএম