অঝোরে কাঁদছেন লাতু মিয়া

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি ফেনী
প্রকাশিত: ১১:০০ এএম, ১৩ জুন ২০১৯

ফেনীতে বৃদ্ধ ভিক্ষুকের সাড়ে ১৯ হাজার টাকা ছিনতাই করে নিয়ে গেছে দুর্বৃত্তরা। টাকার জন্য কাঁদতে কাঁদতে মাটিতে লুটিয়ে পড়ে বার বার মূর্ছা যাচ্ছেন লাতু মিয়া নামে ওই বৃদ্ধ।

ফেনীর পরশুরাম, ফুলগাজী ও ছাগলনাইয়া উপজেলার নিত্য যাতায়াতকারীদের কাছে চেনামুখ লাতু মিয়া। দু’বেলা দু’মুঠো খাবারের জন্য কঙ্কাল সদৃশ এই বৃদ্ধ ভিক্ষা করে আসছেন দীর্ঘদিন ধরে। ভিক্ষা করে রাতে ওই এলাকার বিভিন্ন দোকানের সামনেই ঘুমিয়ে থাকেন।

লাতু মিয়া জানান, প্রতিদিনের মতো মঙ্গলবারও সারাদিন ভিক্ষা করে রাতে বিশ্রাম নিতে ঘুমের প্রস্তুতি নিচ্ছিলেন। এমন সময় রাত সাড়ে ১১টার দিকে অজ্ঞাত দুই মোটরসাইকেল আরোহী তার কাছে গিয়ে ‘কোমল পানীয়’ খেতে দেয়। কিন্তু তিনি তা খেতে অনিহা দেখালে ছিনতাইকারীদের একজন তাকে থাপ্পড় মারার ভয় দেখায় এবং অপরজন তার ব্যাগে থাকা সাড়ে ১৯ হাজার টাকা ছিনতাই করে নিয়ে যায়।

নাম প্রকাশ না করার শর্তে স্থানীয় এক ব্যবসায়ী বলেন, তার দোকান থেকে ওই পানীয় নিয়ে ছিনতাইকারীরা বৃদ্ধকে খাওয়ানোর চেষ্টা করে এবং কৌশলে তার কাছ থেকে টাকা ছিনতাই করে নিয়ে যায়। ছিনতাইকারীরা হাসপাতাল মোড় এলাকার অনেকেরই চেনাজানা।

latu-mia

বৃদ্ধ লাতু মিয়া কুমিল্লা জেলার চৌদ্দগ্রাম উপজেলার আলি আজমের ছেলে। ফেনীতে লাতু মিয়ার আপনজন বলতে কেউ নেই। তাই এ বয়সেও তিনি ভিক্ষা করে ওই টাকা জমিয়ে তার সঙ্গে রেখে দিয়েছিলেন।

স্থানীয় কয়েকজন অভিযোগ করেন, ওই ভিক্ষুকের টাকা ছিনতাইয়ের বিষয়টি পুলিশকে অবহিত করা হলেও পুলিশ কোনো ব্যবস্থা নেয়নি। ওই স্থানে ছিনতাইয়ের ঘটনা নতুন না। তবে মঙ্গলবার রাতে ভিক্ষুকের টাকা ছিনতাই করে একটি অমানবিক ঘটনার জন্ম দিয়েছে।

ফেনী মডেল থানা পুলিশের ওসি (তদন্ত) সাজেদুল ইসলাম মুঠোফোনে বলেন, বিষয়টি তিনি শুনেছেন। অভিযোগ পেলে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

রাশেদুল হাসান/এফএ/জেআইএম

আপনার মতামত লিখুন :