গলার চেইন পেটে, ৫ নারী প্রতারক আটক

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি নাটোর
প্রকাশিত: ০৪:৫৫ পিএম, ১৪ জুন ২০১৯

নাটোরের বড়াইগ্রামে সংঘবদ্ধ পাঁচ নারী প্রতারককে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। একটি স্বর্ণের চেইন ছিনিয়ে নিয়ে গিলে ফেলায় স্থানীয়রা তাদের ধরে পুলিশে সোপর্দ করে। শুক্রবার দুপুর ১২টার দিকে উপজেলার বনপাড়া এলাকার দুলাল হোসেনের বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে।

আটককৃত নারীরা হচ্ছেন- পাবনার মুলাডুলি গ্রামের স্বামী পরিত্যক্তা আয়েশা বেগম (৫০), একই গ্রামের মৃত ইউনুস ব্যাপারীর মেয়ে আঁখি আক্তার (৩০), ঢাকার সাভার এলাকার সুমন হোসেনের স্ত্রী তাসলিমা বেগম (২৫), একই এলাকার আশরাফুল ইসলামের স্ত্রী জান্নাত (৩০) ও জাহিদ আলীর মেয়ে ফাতেমা আক্তার (১৬)। পুলিশ মূল অভিযুক্ত আয়েশা বেগমের পেট এক্সরে ও আল্ট্রাসনোগ্রাফি করতে চাইলে চেইন গিলে খেয়ে ফেলার কথা স্বীকার করে সে।

স্থানীয় পৌর কাউন্সিলর শরীফুন্নেছা শিরিন বলেন, দুপুরে সাহায্য চাওয়ার নামে পাঁচ নারী উপজেলার দুলাল হোসেনের বাড়িতে যান। সেখানে পানি পান করতে চাইলে বেড়াতে আসা দুলালের শাশুড়ি হাসিনা বেগম (৫৫) তাদের জন্য পানি আনেন। এ সময় প্রতারকচক্রের সদস্য আয়েশা আচমকা হাসিনার গলার চেইন ছিনিয়ে নিয়ে গিলে ফেলেন এবং দ্রুত পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করেন। পরে হাসিনার চিৎকারে আশপাশের লোকজন এগিয়ে এসে তাদেরকে আটক করে পুলিশে সোপর্দ করে।

বনপাড়া পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ পরিদর্শক নাজমুল হক ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে জানান, আটককৃত পাঁচ নারীকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য বড়াইগ্রাম থানা পুলিশ হেফাজতে প্রেরণ করা হয়েছে।

রেজাউল করিম রেজা/বিএ/এমকেএইচ