ছাত্রীর স্পর্শকাতর স্থানে হাত, প্রধান শিক্ষক গ্রেফতার

উপজেলা প্রতিনিধি উপজেলা প্রতিনিধি ঈশ্বরদী (পাবনা)
প্রকাশিত: ০৬:৪২ পিএম, ১৭ জুন ২০১৯

অষ্টম শ্রেণির এক ছাত্রীকে যৌন হয়রানির অভিযোগে পাবনার ঈশ্বরদীর আলহাজ টেক্সটাইল মিলস উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মোজাম্মেল হককে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। ওই ছাত্রীর দায়ের করা মামলায় সোমবার সকালে রাজধানীর শাহবাগ থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়।

ঈশ্বরদী থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) বাহাউদ্দীন ফারুকী ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

এদিকে ছাত্রীকে যৌন হয়রানির অভিযোগে প্রধান শিক্ষক মোজাম্মেল হককে সাময়িক অব্যাহতি দিয়েছে স্কুল কর্তৃপক্ষ। এ ঘটনায় ওই ছাত্রী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) আহম্মেদ হোসেন ভূঁইয়ার কাছে লিখিত অভিযোগ করে। তদন্ত প্রতিবেদনের ভিত্তিতে প্রধান শিক্ষক মোজাম্মেল হককে কারণ দর্শানোর নোটিশ দিয়ে গতকাল রোববার (১৬ জুন) বরখাস্ত করা হয়।

স্কুল কর্তৃপক্ষ ও থানা সূত্রে জানা গেছে, গত ২৫ মে দুপুরে স্কুল মাঠে অষ্টম শ্রেণির ওই ছাত্রী তার কয়েকজন বান্ধবীর সঙ্গে খেলা করছিল। ওই সময় প্রধান শিক্ষক মোজাম্মেল হক ওই ছাত্রীকে ডেকে নিয়ে তাকে বিভিন্ন ধরনের অশ্লীল ও আপত্তিকর কথাবার্তা বলে শরীরের বিভিন্ন স্পর্শকাতর স্থানে হাত দেন। পরে তার বান্ধবীরা এগিয়ে এলে প্রধান শিক্ষক তাকে ছেড়ে দিয়ে দ্রুত স্থান ত্যাগ করেন।

বিষয়টি জানাজানি হলে স্থানীয় প্রভাবশালীরা ঘটনাটি ধামাচাপা দিতে ব্যর্থ হন। পরে ওই ছাত্রী নিজেই বাদী হয়ে ঈশ্বরদী থানায় একটি যৌন হয়রানির মামলা করে। মামলার পর থেকেই অভিযুক্ত প্রধান শিক্ষক গাঢাকা দিয়েছিলেন।

স্কুলের ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি ও উপজেলা মহিলা আওয়ামী লীগের সভানেত্রী কামরুন নাহার শরীফ বলেন, তার কারণে স্কুলের ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ন হয়েছে, শৃঙ্খলা নষ্ট হয়েছে। তাই নিয়মমাফিক তাকে সাময়িক অব্যাহতি দেয়া হয়েছে।

আলাউদ্দিন আহমেদ/আরএআর/জেআইএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]