বৃদ্ধা মাকে রাস্তায় ফেলে গেল সন্তান, বুকে টেনে নিলেন ওসি

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি নারায়ণগঞ্জ
প্রকাশিত: ০৯:১৪ পিএম, ২৫ জুন ২০১৯

নারায়ণগঞ্জের আড়াইহাজার উপজেলায় রাস্তায় ফেলে যাওয়া খোদেজা নামের ৭৫ বছরের এক বৃদ্ধাকে বুকে টেনে নিলেন আড়াইহাজার থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) নজরুল ইসলাম।

১৫ দিন আগে নিজের দুই সন্তান হাছেন আলী ও জামান বৃদ্ধা মাকে রাতের আঁধারে রাস্তায় ফেলে যায়। মঙ্গলবার খবর পেয়ে ওসি নজরুল ইসলাম বৃদ্ধাকে উদ্ধার করে নিজের মা মনে করে বুকে টেনে নেন।

বৃদ্ধা খোদেজা আড়াইহাজার উপজেলার বিশ্বনন্দী ইউনিয়নের চৈতনকান্দা এলাকার মৃত মিল্লাত আলীর স্ত্রী। এ ঘটনায় বৃদ্ধার দুই ছেলেকে আটক করেছে পুলিশ। পরে ওসির উদ্যোগে দুই সন্তানের কাছ থেকে বৃদ্ধার নামে দুই শতাংশ জমি লিখে নেয়া হয়।

বৃদ্ধা খোদেজা বলেন, ‘১৯৭১ সালে স্বামী বিল্লাত আলী দুই ছেলে ও এক মেয়ে রেখে মারা যান। পরে পৈতৃক সূত্রে সন্তানরা জমির মালিক হয়। একপর্যায়ে বাবার বাড়ির জমিসহ নিজের স্বামীর কাছ থেকে পাওয়া ২০ শতাংশ জমি চার বছর আগে সন্তানদের নামে লিখে দেই। এরপর ভাত-কাপড় তো দূরের কথা আমাকে ঘর থেকে বাইর করে দেয় সন্তানরা।’

তিনি বলেন, আমার মাথা গোঁজার ঠাঁই নেই। পুত্রবধূরা আমাকে বিভিন্ন সময় মারধর করতো। ১৫ দিন আগে ছেলেরা রাতের আঁধারে আমাকে রাস্তায় ফেলে যায়। আমার থাকার ঘরে তালা ঝুলিয়ে দেয়। চৈতনকান্দা এলাকার একটি রাস্তায় আমাকে ফেলে যায় সন্তানরা। পরে ওসি নজরুল ইসলাম খবর পেয়ে আমাকে বুকে তুলে নেন।

ওই বৃদ্ধা আরও বলেন, ‘আমি ওসির জন্য আল্লাহর কাছে দোয়া করব। তিনি যেন এভাবে মানুষের সেবা করে যেতে পারেন। তার কারণে আমি থাকার একটু জায়গা পেলাম।’

আড়াইহাজার থানা পুলিশের ওসি নজরুল ইসলাম বলেন, একজন অসহায় মায়ের পাশে দাঁড়াতে পেরে নিজেকে ধন্য মনে করছি। বৃদ্ধা মায়ের মাথা গোঁজার ঠাঁই করে দিয়েছি। বৃদ্ধা মা ভালো থাকুক, সুখে থাকুক।

মো. শাহাদাত হোসেন/এএম/পিআর

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]