নেত্রকোনায় শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষার সময় আটক ৩০

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি নেত্রকোনা
প্রকাশিত: ০৫:৪৪ পিএম, ২৮ জুন ২০১৯
প্রতীকী ছবি

নেত্রকোনায় সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে সহকারী শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষায় অসদুপায় অবলম্বনের দায়ে এক পরীক্ষার্থীকে এক মাসের কারাদণ্ড দিয়েছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। এ ছাড়াও অসদুপায়ে পরীক্ষা দিতে পরীক্ষার্থীদের সহযোগিতা করার অভিযোগে ৩০ জনকে আটক করেছে পুলিশ।

শুক্রবার ৪র্থ ধাপে সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে সহকারী শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষা চলাকালে তাদের আটক করা হয়ে বলে জানিয়েছেন নেত্রকোনার জেলা প্রশাসক মঈন উল ইসলাম।

দণ্ডপ্রাপ্ত পরীক্ষার্থী হচ্ছেন- কেন্দুয়া উপজেলা আরামবাগ এলাকার আব্দুল মালেকের ছেলে জাহেদুল ইসলাম (২৭)। তিনি নেত্রকোনা সরকারি কলেজ কেন্দ্রে পরীক্ষায় অংশ নিয়েছিলেন।

জেলা প্রশাসক মঈন উল ইসলাম জানান, নিয়ম বহির্ভূতভাবে স্মার্ট ফোন নিয়ে জাহেদুল ইসলাম পরীক্ষায় অংশ নেন। এ সময় তিনি এই ফোনের মাধ্যমে পরীক্ষার হলের বাইরে প্রশ্ন পাঠিয়ে উত্তর আনেন। ঘটনাটি নির্বাহী হাকিম মঈন উদ্দিন হাতেনাতে ধরে ফেলার পর তাকে ভ্রাম্যমাণ আদালত বসিয়ে এক বছরের বিনাশ্রম কারাদণ্ড দেন।

অপরদিকে কেন্দুয়ায় প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষায় পরীক্ষার্থীদের উত্তরপত্র পাঠানোর চেষ্টা করছিল ৩০ জন প্রশ্নপত্র ফাঁস চক্রের সদস্য। এদের মধ্যে শিক্ষক, শিক্ষিকা ও শিক্ষার্থী রয়েছেন।

গোপন সংবাদে খবর পেয়ে পুলিশ অভিযান চালিয়ে কেন্দুয়ায় উপজেলার টেংগুরি এলাকায় শিল্পপতি শামিম আহমেদের অটো রাইস মিল থেকে তাদের আটক করে। এদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণের প্রক্রিয়া চলছে বলে জানান জেলা প্রশাসক।

কামাল হোসাইন/আরএআর/এমকেএইচ