৮ দিন পর গাইবান্ধা-ঢাকা বাস চলাচল শুরু

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি গাইবান্ধা
প্রকাশিত: ০৮:৩৬ এএম, ১৪ জুলাই ২০১৯

৮ দিন বন্ধ থাকার পর গাইবান্ধা থেকে ঢাকাগামী দূরপাল্লার বাস চলাচল শুরু হয়েছে। এতে ভোগান্তি দূর হয়েছে এই এলাকার যাত্রীদের।

শনিবার (১৩ জুলাই) রাত ৯টার দিকে রাজধানীর গাবতলীতে বাস মালিক সমিতির কার্যালয়ে বৈঠক শেষে এ ঘোষণা দেয়া হয়। এর পরপরই গাইবান্ধা থেকে ঢাকাগামী বাস চলাচল শুরু হয়।

উল্লেখ্য, গত ৬ জুলাই থেকে পরিবহন শ্রমিক ও বহিরাগত পরিবহন মালিকদের দ্বন্দ্বের কারণে এ জেলা থেকে ৭টি পরিবহন চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। শ্রমিকরা জানায়, বাস টার্মিনাল থেকে দূরপাল্লার কোচগুলো ছাড়ার সময় প্রতিদিন ১৮০ টাকার পরিবর্তে ২৬০ টাকা দাবি করা হয়। সেই সঙ্গে শ্রমিকরা মহাসড়কে চাঁদাবাজি বন্ধেরও দাবি জানায়। এ নিয়ে গাইবান্ধা জেলা পর্যায়ের মালিকদের সঙ্গে শ্রমিক সংগঠনের দ্বন্দ্ব সৃষ্টি হলে গত ৬ জুলাই থেকে বাস চলাচল বন্ধ হয়ে যায়।

এ অবস্থায় গাইবান্ধা জেলা প্রশাসন, পুলিশ প্রশাসন, মোটর মালিক সমিতি ও শ্রমিক সংগঠনের বৈঠকে বিষয়টির নিষ্পত্তি হয়। ফলে একদিন পরই গাইবান্ধা থেকে ঢাকাগামী দূরপাল্লার কোচ চলাচলের সিদ্ধান্ত হয় বলে জানায় জেলা মোটর মালিক সমিতি।

এদিকে ঢাকা বাস-ট্রাক ওনার্স অ্যাসোসিয়েশনের সঙ্গে শ্রমিক সংগঠনের মহাসড়কে চাঁদাবাজি ও বর্ধিত চাঁদা প্রদান বন্ধ, সড়কে যানবাহনের নিরাপত্তা বিধানসহ অন্যান্য বিষয়ে নিষ্পত্তি না হওয়ায় তারা গাইবান্ধা থেকে টানা ৮ দিন ঢাকাগামী দূরপাল্লার বাস চলাচল বন্ধ রেখেছিল। ফলে প্রতিদিন ৭টি পরিবহন কোম্পানির গড়ে যেখানে ৪ থেকে ৬টি চেয়ারকোচ গাইবান্ধা-ঢাকা রুটে চলাচল করতো তা একটানা ৮ দিন বন্ধ থাকায় যাত্রীদের সীমাহীন দুর্ভোগ পোহাতে হয়েছিল।

পলাশবাড়ী মোটর শ্রমিক ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক গোলাম সারওয়ার প্রধান বিপ্লব বলেন, উভয় পক্ষকে নিয়ে ঢাকার গাবতলীতে মালিক সমিতির বৈঠক হয়। বৈঠকে সার্বিক বিষয়ে আলোচনা শেষে ঢাকাগামী বাস চলাচলের সিদ্ধান্ত নেয়া হয়।

এমএমজেড/জেআইএম

আপনার মতামত লিখুন :