টেকনাফে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ এবার নারী নিহত

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি কক্সবাজার
প্রকাশিত: ১২:৪২ পিএম, ১৭ জুলাই ২০১৯
ফাইল ছবি

কক্সবাজারের টেকনাফে পুলিশের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ এবার এক নারী নিহত হয়েছেন। পুলিশের দাবি তিনি মাদক পাচারকারি।

বুধবার ভোরে এ বন্দুকযুদ্ধের ঘটনা ঘটে। এ সময় ঘটনাস্থল থেকে অস্ত্র ও ইয়াবা উদ্ধার করা হয়। গোলাগুলিতে পুলিশ সদস্যরাও আহত হয়েছেন বলে জানিয়েছেন টেকনাফ থানার ওসি প্রদীপ কুমার দাশ।

নিহত হামিদা বেগম (৩২) হ্নীলার জাদিমোরার শিকলঘেরা এলাকার ছমি উদ্দিনের স্ত্রী।

ওসি প্রদীপ কুমার দাশ জানান, টেকনাফের হ্নীলার জাদিমোরা সংলগ্ন শিকলঘেরা পাহাড় এলাকায় বুধবার ভোরে পুলিশের সঙ্গে মাদক কারবারিদের গোলাগুলির ঘটনা ঘটে। এ সময় পুলিশ সদস্যরা আহত হন। পুলিশও আত্মরক্ষার্থে পাল্টা গুলি করে। পরে ঘটনাস্থল থেকে হামিদা বেগমকে (৩২) গুলিবিদ্ধ অবস্থায় উদ্ধার করা হয়। তাকে হাসপাতালে নেয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

ঘটনাস্থল থেকে একটি এলজি ও ২ হাজার পিস ইয়াবাও জব্দ করা হয়েছে বলে দাবি করেন ওসি।

মরদেহটি ময়নাতদন্তের জন্য কক্সবাজার সদর হাসপাতাল মর্গে রাখা হয়েছে উল্লেখ করে ওসি জানান, এ ঘটনায় পৃথক মামলা করা হচ্ছে।

অপরদিকে একইদিন টেকনাফ-২ বিজিবি ব্যাটালিয়নের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ যশোরের জব্বার আলীর ছেলে জাবেদ মিয়া (৩৪) ও চাঁদপুরের রেজোয়ান সওদাগরের ছেলে আসমাউল সওদাগর (৩৫) নিহত হয়েছেন।

ঘটনাস্থল থেকে ১০ হাজার ইয়াবা, দেশীয় অস্ত্র ও ৩ রাউন্ড কার্তুজ উদ্ধার হয় বলে জানিয়েছেন বিজিবির টেকনাফ ব্যাটালিয়ন কমান্ডার লে. কর্নেল ফয়সাল হাসান খান।

সায়ীদ আলমগীর/এফএ/এমকেএইচ

আপনার মতামত লিখুন :