প্রেম করে বিয়ে, দু’মাস পরেই স্ত্রীকে গলা কেটে হত্যা

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি ঝিনাইদহ
প্রকাশিত: ০৫:০৯ পিএম, ১৬ আগস্ট ২০১৯

ঝিনাইদহের কালীগঞ্জ উপজেলায় আয়েশা খাতুন মিম (১৮) নামে এক নববধূর গলাকাটা মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

শুক্রবার বেলা তিনটার দিকে উপজেলার কাষ্টভাঙ্গা গ্রামের একটি লিচু বাগান থেকে তার মরদেহ উদ্ধার করা হয়। আয়েশা খাতুন মিম ওই গ্রামের দিনমজুর ইদ্রীস আলীর মেয়ে এবং উপজেলার রঘুনাথপুর গ্রামের এখলাস উদ্দিনের স্ত্রী।

দুই মাস আগে মিমকে পারিবারিকভাবে বিয়ে করেন কালীগঞ্জ উপজেলার রঘুনাথপুর গ্রামের হাশেম আলীর ছেলে এখলাস উদ্দিন। প্রেম করে বিয়ে করায় ছেলের পরিবার বিয়েটি মেনে না নেয়ায় মিম কাষ্টভাঙ্গা গ্রামে বাবার বাড়িতেই থাকতো।

কালীগঞ্জ থানা পুলিশের ওসি ইউনুস আলী জানান, দীর্ঘদিন প্রেম করার পর দুই মাস আগে আয়শা খাতুন মিমের সঙ্গে এখলাস উদ্দীনের বিয়ে হয়। গতকাল ১৫ আগস্ট বৃহস্পতিবার জামাই এখলাস শ্বশুর বাড়িতে এসে বলে তার বাড়ি থেকে মিমকে নিয়ে যেতে বলেছে এবং বিকেলে সে তার স্ত্রীকে নিয়ে নিজের বাড়িতে যাওয়ার কথা বলে বেরিয়ে যায়।

এর একদিন পর শুক্রবার দুপুরে কাষ্টভাঙ্গা গ্রামের মাঠের মধ্যে মিমের গলাকাটা মৃতদেহ পড়ে থাকতে দেখে এলাকাবাসী পুলিশকে খবর দেয়। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে মরদেহটি উদ্ধার করে। মিমের স্বামী এখলাস এ হত্যাকাণ্ড ঘটিয়েছে বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে বলে জানান ওই পুলিশ কর্মকর্তা।

আব্দুল্লাহ আল মাসুদ/এমএএস/পিআর

আপনার মতামত লিখুন :