অসুস্থ বৃদ্ধকে রাস্তা থেকে তুলে হাসপাতালে নিলেন ইউএনও

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি সাতক্ষীরা
প্রকাশিত: ০৯:২৯ পিএম, ০৫ নভেম্বর ২০১৯

একটি অনুষ্ঠানে যোগদান শেষে অফিসে ফিরছিলেন সাতক্ষীরার তালা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মো. ইকবাল হোসেন। পথিমধ্যে মানুষের জটলা দেখে গাড়ি থেকে নেমে পড়েন ইউএনও। দেখেন ৮০ বছরের এক বৃদ্ধ গুরুতর অসুস্থ অবস্থায় রাস্তায় পড়ে আছেন। তাকে ঘিরে আছে উৎসুক মানুষ।

অসুস্থ বৃদ্ধকে হাসপাতালে নেয়ার জন্য কোনো গাড়ি পাওয়া যাচ্ছিল না। এ অবস্থায় কোনো কিছু চিন্তা না করেই নিজের গাড়িতে বৃদ্ধ শামসুর ফকিরকে হাসপাতালে নিয়ে যান ইউএনও ইকবাল হোসেন। মঙ্গলবার তালা উপজেলার জালালপুর ইউনিয়নের জেঠুয়া ফকিরপাড়া এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। ইউএনওর এমন কাজে অবাক সবাই।

শামসুর ফকিরের ছেলে আনারুল ফকির বলেন, দীর্ঘদিন ধরে বাবা অসুস্থ। দুপুরে রাস্তা দিয়ে যাওয়ার সময় মাথা ঘুরে পড়ে যান বাবা। এতে হাতে-মুখে আঘাত পান তিনি। স্থানীয় লোকজন ছুটে এলেও হাসপাতালে নেয়ার জন্য কোনো যানবাহন পাওয়া যাচ্ছিল না। ঠিক সেই মুহূর্তে আশীর্বাদ হয়ে আসেন ইউএনও ইকবাল হোসেন। দ্রুত নিজের গাড়িতে বাবাকে হাসপাতালে নিয়ে যান তিনি। এজন্য বড় ধরনের বিপদ থেকে বেঁচে যান বাবা।

আনারুল ফকির আরও বলেন, ইউএনওর কাছে আজীবন আমরা ঋণী হয়ে থাকব। যতদিন বেঁচে থাকব ততদিন স্যারের কাছে আমরা কৃতজ্ঞ থাকব। আজকের দিনের কথা কোনো দিন ভুলব না আমরা। ইউএনওর প্রচেষ্টায় আমার বাবা বেঁচে আছেন। তার এমন মানবিক কাজে আমরা সবাই মুগ্ধ হয়েছি।

satkhira-uno

জালালপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মফিদুল হক লিটু জাগো নিউজকে বলেন, জালালপুর ইউনিয়নের কৃষ্ণকাটি মাধ্যমিক বিদ্যালয় ও প্রাথমিক বিদ্যালয়ে ডেঙ্গু বিষয়ক সচেতনতা সভা শেষে উপজেলা সদরে ফিরছিলেন ইউএনও ইকবাল হোসেন। জেঠুয়া ফকিরপাড়া এলাকায় পৌঁছে ইউএনও দেখেন রাস্তায় অসুস্থ অবস্থায় পড়ে আছেন এক বৃদ্ধ। হাসপাতালে নেয়ার জন্য কাউকে পাওয়া যাচ্ছিল না, ছিল না কোনো যানবাহন।

স্থানীয় লোকজনের জটলা দেখে ইউএনও গাড়ি থেকে নেমে পড়েন। এমন অবস্থায় নিজের গাড়িতে তুলে বৃদ্ধকে নিয়ে তালা হাসপাতালে ছুটে যান তিনি। এখানে যোগদানের পর থেকে একের পর এক মানবিক কাজ করে সবাইকে চমকে দিচ্ছেন ইউএনও ইকবাল হোসেন।

তালা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মো. ইকবাল হোসেন বলেন, ‘আমি যা করেছি সেটি আমার দায়িত্ব ছিল। বিপদে পড়া অসহায় মানুষের পাশে সবসময় আমাদের থাকা উচিত। দায়িত্ববোধ থেকে এ কাজটি করেছি আমি।’

আকরামুল ইসলাম/এএম/এমএস