বড় ভাইয়ের বিছানায় পিস্তল রেখে পুলিশে ফোন দিলো ছোট ভাই

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি টাঙ্গাইল
প্রকাশিত: ০৫:৫৮ পিএম, ০৪ জুন ২০২০

টাঙ্গাইলের সখীপুরে বড় ভাই আইয়ুব আলীর বিছানার নিচে পিস্তল রেখে ফাঁসানোর চেষ্টায় আজিজুল ইসলাম (৪০) ওরফে আজিজ কালু নামে একজনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। এ সময় ৭.৬২ মডেলের একটি বিদেশি পিস্তল উদ্ধার করা হয়।

বুধবার রাতে উপজেলার বড়চওনা গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। ঘটনার সঙ্গে জড়িত তাদের আরেক ভাই আলামিন ও পিস্তল সরবরাহকারী আলামিনের বন্ধু শফিকুলকে খুঁজছে পুলিশ।

পুলিশ জানায়, উপজেলার বড়চওনা গ্রামের মৃত রাইজুদ্দিনের তিন ছেলে আইয়ুব আলী, আজিজুল ও আলামিন। কয়েকদিন ধরে আইয়ুব আলীর সঙ্গে অপর দুই ভাই আজিজুল ও আলামিনের জমি নিয়ে বিরোধ চলছে। বুধবার বিকেলে আজিজুল তার বড়ভাই আইয়ুবের বিছানার নিছে অস্ত্র রয়েছে বলে পুলিশকে খবর দেয়। পরে পুলিশ ওই ঘরের বিছানার নিচ থেকে একটি বিদেশি পিস্তল উদ্ধার করে।

এ সময় আইয়ুবের ঘরের জানালা খোলা দেখে পুলিশের সন্দেহ হয়। পুলিশ আইয়ুব আলী ও আজিজুলকে জিজ্ঞাসাবাদ করলে ফাঁসানোর বিষয়টি বেরিয়ে আসে। পরে পুলিশ আইয়ুবকে ছেড়ে দিয়ে ছোট ভাই আজিজুলকে নিয়ে অস্ত্রের প্রকৃত মালিকের খোঁজে অভিযানে নামে। বৃহস্পতিবার বিকেলে এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত তাদের ছোট ভাই আলামিন ও তার বন্ধু অস্ত্র সরবরাহকারী শফিকুল ধরা পড়েনি।

পুলিশের তথ্য মতে, শফিকুলের বিরুদ্ধে এর আগেও অস্ত্র ও চাঁদাবাজির মামলা রয়েছে। এ কারণে সে ১০ বছর জেলও খেটেছে।

সখীপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আমির হোসেন বলেন, এ ঘটনায় এসআই জাহিদুল ইসলাম বাদী হয়ে মামলা করেছেন। মূলত বড়ভাইকে ফাঁসাতে ছোট দুই ভাই বিছানার নিচে অস্ত্র লুকিয়ে রেখে পুলিশকে খবর দেয়। ঘটনার মূল হোতা ছোট ভাই আলামিন মিয়া ও তার বন্ধু শফিকুলকে গ্রেফতারের চেষ্টায় অভিযান অব্যাহত রয়েছে।

আরিফ উর রহমান টগর/এফএ/পিআর

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]