গণধর্ষণের সংবাদ প্রকাশ করায় দুই সাংবাদিককে আটকে রেখে মারধর

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি কুমিল্লা
প্রকাশিত: ০৯:৩৭ পিএম, ০৯ জুলাই ২০২০

কুমিল্লার চান্দিনা উপজেলায় ‘ডেনিম প্রসেসিং প্লান্ট’ নামের এক পোশাক কারখানার কর্মীকে গণধর্ষণের সংবাদ প্রকাশ করায় স্থানীয় দুই সাংবাদিককে মারধর করছেন কারখানার মালিকপক্ষের লোকজন।

বৃহস্পতিবার (০৯ জুলাই) সকালে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়ক সংলগ্ন চান্দিনার বেলাশহর এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। দৈনিক যুগান্তরের চান্দিনা প্রতিনিধি মো. আব্দুল বাতেন ও দৈনিক যায়যায়দিনের চান্দিনা প্রতিনিধি মো. জাকির হোসেনকে কারখানার সামনের সড়ক থেকে তুলে নিয়ে মারধর করা হয়।

মারধরের পর তাদেরকে কারখানার ভেতরে নিয়ে ক্যামেরা ও মোবাইল ছিনিয়ে নেয়া হয়। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে তাদের উদ্ধার করে হাসপাতালে পাঠান। এসব তথ্য নিশ্চিত করেছেন চান্দিনা থানা পুলিশের ওসি মো. আবুল ফয়সাল।

হাসপাতালে চিকিৎসাধীন সাংবাদিক আব্দুল বাতেন বলেন, বৃহস্পতিবার সকালে মোটরসাইকেলযোগে ওই কারখানার সামনের সড়ক দিয়ে যাওয়ার পথে ‘ডেনিম প্রসেসিং প্লান্ট’ কারখানার মালিক মো. জাহাঙ্গীর আলমের চাচাতো ভাই ও কারখানার কোয়ালিটি সুপারভাইজার মো. লিটন, তার ভাই আনোয়ার হোসেনসহ ১০-১২ জন আমাদের ওপর হামলা চালায়। এ সময় আমাদের ব্যবহৃত ক্যামেরা ও মোবাইল ছিনিয়ে নেয় তারা।

ঘটনার খবর পেয়ে চান্দিনা থানা পুলিশ ও চান্দিনায় কর্মরত সাংবাদিকরা ঘটনাস্থলে গেলে কারখানার পরিচালক মো. আলমগীর হোসেন বলেন, আমাদের কোনো নারী শ্রমিক গণধর্ষণের শিকার না হলেও সাংবাদিকরা আমাদের সুনাম ক্ষুণ্ন করার জন্য মিথ্যা সংবাদ প্রকাশ করেছেন। এজন্য এমন ঘটনা ঘটেছে।

অবশ্য সোমবার (০৬ জুলাই) রাত ৯টার দিকে ওই কারখানা ছুটির পর বাসায় ফেরার পথে গণধর্ষণের শিকার হন এক নারী শ্রমিক। রাতেই তিন ধর্ষককে গ্রেফতার করে পুলিশ। তবে ঘটনাস্থল দেবিদ্বার থানায় হওয়ায় পরদিন দেবিদ্বার থানায় গণধর্ষণের মামলা করা হয়।

চান্দিনা থানা পুলিশের ওসি মো. আবুল ফয়সল বলেন, ঘটনার খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে কারখানার সিসিটিভির ফুটেজ দেখে সাংবাদিকদের মারধরের সত্যতা পেয়েছি আমরা। এ ঘটনায় আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

ওসি মো. আবুল ফয়সল আরও বলেন, ৬ জুলাই রাতে ওই কারখানার এক নারী শ্রমিক গণধর্ষণের শিকার হয়েছেন; ঘটনাটি সত্য। কারখানার মালিকপক্ষের লোকজন বিষয়টি অস্বীকার করলেও ভুক্তভোগী মামলা করেছেন। এ নিয়ে সাংবাদিকদের হামলার ঘটনায় জড়িতদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

মো. কামাল উদ্দিন/এএম/এমকেএইচ

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]