সুনামগঞ্জে আবারও বিপৎসীমার ওপরে উঠে রাস্তায় সুরমার পানি

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি সুনামগঞ্জ
প্রকাশিত: ০১:০৫ পিএম, ১০ জুলাই ২০২০

ভারতের পাহাড়ি ঢল ও টানা বৃষ্টিতে সুনামগঞ্জে আবারও বন্যার শঙ্কা দেখা দিয়েছে। শুক্রবার বেলা ১১টায় সুরমা নদীর পানি বিপৎসীমার ১৭ সেন্টিমিটার উপর দিয়ে প্রভাহিত হচ্ছিল। টানা বৃষ্টিপাত অব্যাহত থাকলে আবারও সুনামগঞ্জের নিম্নাঞ্চলে বন্যা পরিস্থিতি তৈরির আশঙ্কা করছে পানি উন্নয়ন বোর্ড।

জানা যায়, ভারতের মেঘালয়ে ভারী এবং সুনামগঞ্জে টানা বৃষ্টিপাতের কারণে সুরমা নদীর পানি বাড়তে শুরু করেছে। সুামগঞ্জে সুরমা নদীর পানি ষোলঘর পয়েন্টে বিপৎসীমার ১৭ সেন্টিমিটার উপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে। সর্বশেষ ২৪ ঘণ্টায় সুনামগঞ্জে ১৮১ মিলিমিটার বৃষ্টিপাত রেকর্ড করা হয়েছে।

ইতোমধ্যে শহরের নদী তীরবর্তী এলাকাগুলোতে পানি প্রবেশ করেছে। শহরের উত্তর আরপিন নগর ও নবীনগর এলাকায় পানি প্রবেশ করায় সেখানকার রাস্তাঘাটে পানি উঠে গেছে।

Sunamganj-(2).jpg

নবীনগর এলাকার বাসিন্দা শুভ আহমেদ বলেন, গতকাল থেকে থেমে থেমে বৃষ্টি হচ্ছে। রাতেও একটানা বৃষ্টি হয়েছে, আজ সকালে ঘুম থেকে উঠে দেখি রাস্তায় পানি চলে এসেছে, যদি এরকম বৃষ্টি অব্যাহত থাকে তাহলে আবার ঘরে পানি উঠবে।

পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী মো. সবিবুর রহমান বলেন, ভারতের মেঘালয়ে ভারী বৃষ্টিপাতের কারণে সুরমা নদীর পানি বর্তমানে বিপৎসীমার উপরে রয়েছে। জেলায় যদি এমন টানা বৃষ্টিপাত ও পাহাড়ি ঢল অব্যাহত থাকে তাহলে আবারও একটি বন্যার আশঙ্কা রয়েছে।

উল্লেখ্য, গেল ২৬ জুন উজান থেকে নেমে আসা পাহাড়ি ঢল ও টানা বৃষ্টিপাতের ফলে সুনামগঞ্জে বন্যা দেখা দেয়। এ সময় সুনামগঞ্জ শহরসহ হাওরাঞ্চলে পানি প্রবেশ করে এবং ৫০ হাজারেরও বেশি পরিবার ক্ষতিগ্রস্ত হয়। পরবর্তীতে ২৯ জুন থেকে সুরমা নদীর পানি কমতে শুরু করলে হাওরাঞ্চল ও নদী তীরবর্তী এলাকাগুলো থেকে পানি নেমে যায়।

মোসাইদ রাহাত/এফএ/এমএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]