ছেলে পালিয়েছে প্রেমিকা নিয়ে, বাবা পালিয়েছেন ভয়ে

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি সাতক্ষীরা
প্রকাশিত: ০২:২৫ পিএম, ০৬ আগস্ট ২০২০

প্রেমের টানে বাড়ি ছেড়ে পালিয়েছে প্রেমিক-প্রেমিকা। আর মেয়েকে না পেয়ে ছেলের পরিবারের ঘরবাড়ি ভাঙচুর করছে মেয়ের পরিবার। নিরুপায় হয়ে ছেলের বাবা-মা এখন ঘরবাড়ি ছেড়ে পালিয়ে বেড়াচ্ছেন।

প্রেমিক তরিকুল গাজী (২৪) সাতক্ষীরার কলারোয়া উপজেলার জয়নগর ইউনিয়নের খোর্দবাটরা গ্রামের বাবুর আলীর ছেলে। আর প্রেমিকা রিমা খাতুন (১৮) প্রতিবেশী খলিল শেখের মেয়ে।

জানা গেছে, তরিকুল গাজী ও রিমা খাতুনের মধ্যে প্রেমের সম্পর্ক ছিল। একমাস আগে তারা বাড়ি থেকে পালিয়ে যায়। ঘটনার তিনদিন পর ইউপি চেয়ারম্যান ও স্থানীয় ইউপি সদস্য ওই তরুণ-তরুণীকে বাড়িতে এনে পরিবারের হাতে তুলে দেন। কিন্তু একদিন পরই ওই তরুণ-তরুণী আবারও বাড়ি ছেড়ে পালিয়ে যায়। এরপর থেকে নিখোঁজ রয়েছে তারা।

প্রেমিক তরিকুল গাজীর চাচি মোমেনা বেগম জানান, গত এক মাস ধরে বিভিন্ন সময় বাড়িতে হামলা চালাচ্ছে রিমার পরিবার। বাড়ি ভাঙচুর ও ঢিল ছুড়ে মারছে। এছাড়া বিভিন্ন ভয়ভীতি দেখাচ্ছে তারা। ভয়ে তরিকুলের বাবা ও মা বাড়ি ছেড়ে অন্যত্র চলে গেছেন।

satkhira-love

তবে এমন অভিযোগ অস্বীকার করেছেন রিমার বাবা খলিল শেখ। তিনি বলেন, আমি কারো বাড়ি ভাঙচুর করিনি। আমার মেয়েকে পেলেই হলো।

ঘটনার বিষয়ে স্থানীয় ইউপি সদস্য বজলুর রহমান বলেন, আমি ও চেয়ারম্যান ঘটনার শুরু থেকে জানি। বাড়িতে হামলার বিষয়টি আমি শুনেছি। খলিল শেখের পরিবারের সদস্যদের অত্যাচারে বাড়ি ছেড়েছে তরিকুল গাজীর মা-বাবা। বাড়িটি এখন ফাঁকা। তারপরও অত্যাচার থেমে নেই। বিষয়টি খুবই দুঃখজনক।

এ বিষয়ে জয়নগর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান শামছুদ্দিন আল মাছুদ বাবু বলেন, বাবুর আলী সরসকাটি বাজারের নৈশ প্রহরী। খলিল শেখের পরিবারের অত্যাচারে সে গত ২০ দিন আগে পালিয়েছে।

ঘটনার বিষয়ে কলারোয়া থানার ওসি শেখ মুনীর উল গিয়াসের সঙ্গে একাধিকবার যোগাযোগ করা হলেও তিনি ফোন রিসিভ করেননি।

আকরামুল ইসলাম/এফএ/পিআর

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]