কুড়িগ্রামে ৫ম দফায় বন্যা, ডুবে গেছে নিম্নাঞ্চল

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি কুড়িগ্রাম
প্রকাশিত: ০৭:০৫ পিএম, ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২০

টানা বৃষ্টি ও উজানের ঢলে কুড়িগ্রামে পঞ্চম দফায় ব্রহ্মপুত্র, ধরলা, তিস্তা ও দুধকুমারসহ সবকটি নদ-নদীর পানি বৃদ্ধি পেয়েছে। এতে নিম্নাঞ্চল প্লাবিত হয়ে বন্যা দেখা দিয়েছে। সেতু পয়েন্টে ধরলা নদীর পানি বিপৎসীমার ১৯ সেন্টিমিটার উপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে। বন্যার পানি প্রবেশ করছে নদ-নদীর অববাহিকার চরাঞ্চল ও নিম্নাঞ্চলগুলোতে। তলিয়ে গেছে এসব এলাকার আমনসহ বিভিন্ন ফসলের ক্ষেত।

এদিকে, ধরলার ভাঙনের কবলে পড়েছে সদর উপজেলার চর কৃষ্ণপুর, সারডোব ও নন্দদুলালের ভিটা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়। ভাঙনে নদীগর্ভে বিলীন হয়েছে ভোগডাঙ্গা ইউনিয়নের নন্দ দুলালের ভিটা চর জগমনের এলাকার ৭৯ বাড়ি।

jagonews24

পানি উন্নয়ন বোর্ড সূত্র জানায়, উজানে ও স্থানীয়ভাবে ভারী বৃষ্টিপাতের ফলে নদ-নদীর পানি বৃদ্ধি পেয়ে ধরলার পানি বিপৎসীমার উপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে। তবে আগামীকাল থেকে পানি কমতে শুরু করবে।

কুড়িগ্রাম পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী মো. আরিফুল ইসলাম বলেন, আমরা নদীভাঙন কবলিত এলাকাগুলোতে ভাঙন রোধে জিওব্যাগ ফেলা কার্যক্রম অব্যাহত রেখেছি। পাইলিং দেয়া হচ্ছে এবং বন্যা পরবর্তী নদীর তীর সংরক্ষণ করা হবে।

jagonews24

রাজারহাট আবহাওয়া পর্যবেক্ষণাগারের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা সুবল চন্দ্র সরকার বলেন, গত ২৪ ঘণ্টায় ৪৩.১ মিলিমিটার বৃষ্টিপাত রেকর্ড করা হয়েছে। আগামী ২৬ ও ২৭ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত বৃষ্টিপাত অব্যাহত থাকতে পারে।

এএম/জেআইএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]