প্রহরী খুন হলেও ব্যাংকে খোয়া যায়নি কিছুই!

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি ব্রাহ্মণবাড়িয়া
প্রকাশিত: ১২:৪৮ পিএম, ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২০

বাংলাদেশ ডেভেলপমেন্ট ব্যাংক লিমিটেডের (বিডিবিএল) ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আশুগঞ্জ শাখার নৈশপ্রহরী রাজেশ বিশ্বাসকে (২৩) খুন করে দুর্বৃত্তরা টাকা লুটের চেষ্টা করলেও টাকা কিংবা মূল্যবান কোনো জিনিসপত্র খোয়া যায়নি বলে দাবি করেছে ব্যাংক কর্তৃপক্ষ। তবে এ ঘটনায় এখনও পর্যন্ত (দুপুর ১২টা) থানায় কোনো মামলা দায়ের হয়নি।

ঘটনাস্থল পরিদর্শনে রোববার (২৭ সেপ্টেম্বর) সকালে বিডিবিএলের প্রধান কার্যালয় থেকে ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা এসেছেন। আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর পাশাপাশি তারাও ঘটনাটি খতিয়ে দেখছেন বলে জানিয়েছেন বিডিবিএলের আশুগঞ্জ শাখার ব্যবস্থাপক মো. মোবাশ্বের হোসেন।

তিনি বলেন, দুইদিন ব্যাংক বন্ধ ছিল। মাঝে-মধ্যে আমাদের কর্মকর্তারা বন্ধের দিনও আসেন। গতকাল ব্যাংকে এসে ভেতর থেকে কোনো সাড়া-শব্দ না পেয়ে আমরা থানায় খবর দিই। পরবর্তীতে পুলিশ এসে রাজেশের মরদেহ উদ্ধার করে।

murder1

তিনি বলেন, ‘টাকার ভল্ট ভাঙার চেষ্টা করেছে তবে ভল্ট থেকে কোনো টাকা খোয়া যায়নি। এছাড়া ব্যাংকের অন্যসব মূল্যবান জিনিসপত্র সবকিছুই ঠিক আছে। ব্যাংকের পক্ষ থেকে থানায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।’

এর আগে গতকাল শনিবার (২৬ সেপ্টেম্বর) রাত ১১টায় ঢাকা-সিলেট মহাসড়কের আশুগঞ্জ গোলচত্বর সংলগ্ন বিডিবিএল শাখা ভবনের ভেতর থেকে ব্যাংকটির নৈশপ্রহরী রাজেশের হাত-পা বাঁধা রক্তাক্ত মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ।

তিনি সিলেটের জকিগঞ্জ উপজেলার চান্দপুর গ্রামের ক্ষিরোদ বিশ্বাসের ছেলে।

murder1

দুর্বৃত্তরা রাজেশকে খুন করে ব্যাংকের ভল্ট থেকে টাকা লুটের চেষ্টা চালায়। পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে ব্যাংকের টাকার ভল্টের হাতল ভাঙা অবস্থায় দেখাতে পায়। এছাড়া ব্যাংকের ভেতরে আলমারি ও ড্রয়ারও ভাঙচুর করে দুর্বৃত্তরা। ভবনের পেছনের দিকের একটি জানালার গ্রিল কেটে ব্যাংকে প্রবেশ করে এই হত্যকাণ্ড ঘটিয়ে থাকতে পারে বলে পুলিশ ধারণা করছে।

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (প্রশাসন ও অপরাধ) মো. রইছ উদ্দিন বলেন, ব্যাংক থেকে কোনো কিছু খোয়া গেছে কি-না সেটি ব্যাংক কর্তৃপক্ষ এখনও আমাদের নিশ্চিত করেনি। আমরা ব্যাংকের ক্লোজ সার্কিট ক্যামেরার ফুটেজ পর্যালোচনা করছি। এখনও ভিকটিমের সুরতহাল চলছে, সুরতহাল শেষ হলে আমরা ধারণা করতে পারব কীভাবে তাকে মারা হয়েছে।

আজিজুল সঞ্চয়/এফএ/এমএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]