যমুনায় ইলিশ ধরায় ২২ জেলের কারাদণ্ড

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি সিরাজগঞ্জ
প্রকাশিত: ০১:০৭ পিএম, ২৬ অক্টোবর ২০২০

সিরাজগঞ্জের বেলকুচি উপজেলায় যমুনা নদীর বিভিন্ন পয়েন্টে সরকারি নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে ইলিশ ধরায় ২২ জেলেকে ১২ দিন করে বিনাশ্রম কারাদণ্ড দিয়েছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত।

সিরাজগঞ্জের বেলকুচি উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. আনিসুর রহমানের নেতৃত্বে চলমান ভ্রাম্যমাণ আদালত এই দণ্ডাদেশ দেন।

রোববার বিকেলে ৫টা থেকে গভীর রাত পর্যন্ত উপজেলার যমুনা নদীর বিভিন্ন পয়েন্টে অভিযান পরিচালিত হয়। পরে সাজাপ্রাপ্তদের সিরাজগঞ্জ জেলা কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

দণ্ডপ্রাপ্তরা হলেন, বেলকুচি উপজেলার ঠাকুরপাড়া গ্রামের চান মিয়া (৪০), বেলকুচির চর গ্রামের আব্বাস(৩২), বেলকুচি গ্রামের নুরে আলম (২৬), শাকিল (১৯), চর বেল গ্রামের খাইরুল (৩০), কবিরুল (৩০), রফিকুল (৪০), সোলেমান (১৯), মূলকান্দি গ্রামের আলমগীর (২৮), ইউসুফ(৩৮), চৌহালী উপজেলার চাঁদপুর গ্রামের সোনা মিয়া (৩৫), মান্নান (৩০), দুলাল (৪৩), মজিবর (৪১), বারবালা গ্রামের ফরিদুল (৩১), ফরজ আলী (৫২), সামিউল (১৯), খোরশেদ (৩২), নাইম (২০), বোয়ালকান্দি গ্রামের রবিউল (২৬), হাসেম (৩৫) ও চালুহারা গ্রামের কাইয়ুম (১৯)।

jagonews24

ভ্রাম্যমাণ আদালতের পেশকার হাফিজ উদ্দিন জানান, অভিযানে কারেন্ট জাল দিয়ে ইলিশ ধরার অপরাধে ২২ জনকে আটক, ৫০ হাজার মিটার কারেন্ট জাল ও ১০ কেজি ইলিশ জব্দ করা হয়। পরে ভ্রাম্যমাণ আদালতে ২২ জনকে ১২ দিন করে বিনাশ্রম কারাদণ্ড প্রদান করেন। জব্দকৃত কারেন্ট জাল পুড়িয়ে ধবংস করা হয় এবং মাছগুলো স্থানীয় এতিমখানায় বিতরণ করা হয়।

এ সময় আরও উপস্থিত ছিলেন- উপজেলা মৎস্য অফিসার মো. হাসান মাহমুদুল হক ও বেলকুচি থানা পুলিশের এএসআই মোস্তাফিজ।

ইউসুফ দেওয়ান রাজু/এফএ/জেআইএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]