২২ বছর আগের হত্যা মামলায় ছয়জনের যাবজ্জীবন

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি টাঙ্গাইল
প্রকাশিত: ০৫:৫৬ পিএম, ২৯ অক্টোবর ২০২০

টাঙ্গাইল সদর উপজেলায় ২২ বছর আগের একটি হত্যা মামলায় ছয়জনের যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। একই সঙ্গে তাদের ২০ হাজার টাকা করে জরিমানা অনাদায়ে ছয় মাসের কারাদণ্ডের আদেশ দেয়া হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (২৯ অক্টোবর) দুপুরে টাঙ্গাইলের অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ দ্বিতীয় আদালতের বিচারক সাউদ হাসান এ রায় দেন। এ মামলা থেকে ছয়জনকে বেকসুর খালাস দেয়া হয়েছে।

যাবজ্জীবন দণ্ডপ্রাপ্তরা হলেন- সদর উপজেলার রশিদপুর গ্রামের আবুল হোসেনের ছেলে আব্দুল কাদের, মৃত ইনছান খার ছেলে চান খা, মৃত নুরু মন্ডলের ছেলে শহীদ, নেদু হাজীর ছেলে ওয়াজেদ, মৃত জুরান মন্ডলের ছেলে আবুল ও রুপচান।

বেকসুর খালাসপ্রাপ্তরা হলেন- রশিদপুর গ্রামের নেদু হাজীর ছেলে সাইদ, মিন্টু, সাধু, নুরু মন্ডলের ছেলে রহিজ উদ্দিন, ওসমান বেপাড়ীর ছেলে আজিজ ও ডুবাইল গ্রামের হামেদ আলীর ছেলে টেরু চান।

রায়ের সত্যতা নিশ্চিত করে রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী (পিপি) এস আকবর আলী খান জানান, ১৯৯৮ সালের ২২ নভেম্বর রাত ১০টার দিকে পূর্ব শত্রুতার জেড়ে সদর উপজেলার রশিদপুর গ্রামের মৃত মোঘল খার ছেলে বাহাদুর খাকে চাপাতিসহ দেশীয় অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে হত্যা করা হয়। পরদিন নিহতের ভাই আব্দুল কুদ্দুস বাদী হয়ে টাঙ্গাইল সদর থানায় হত্যা মামলা করেন।

১৯৯৯ সালের ৯ আগস্ট ১২ জনের নামে আদালতে চার্জশিট জমা দেয় পুলিশ। পরে বৃহস্পতিবার হত্যা মামলার ২২ বছর পর ছয়জনের যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। এছাড়াও ছয়জনকে বেকসুর খালাস দেয়া হয়েছে।

আরিফ উর রহমান টগর/আরএআর/এমকেএইচ

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]