টাঙ্গাইলে বীর মুক্তিযোদ্ধাকে পিটিয়ে হত্যা, গ্রেফতার ২

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি টাঙ্গাইল
প্রকাশিত: ০৫:৪৪ পিএম, ৩১ অক্টোবর ২০২০
নিহত বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল লতিফ খান ( ইনসেটে)

টাঙ্গাইলের বাসাইল উপজেলায় গ্রাম্য সালিশে আব্দুল লতিফ খান (৬৫) নামের এক বীর মুক্তিযোদ্ধাকে পিটিয়ে ও গলাটিপে হত্যার ঘটনায় দুজনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

শনিবার (৩১ অক্টোবর) তাদের গ্রেফতার করা হয়। এর আগে শুক্রবার (৩০ অক্টোবর) সন্ধ্যায় উপজেলার হাবলা ইউনিয়নের মটরা গ্রামে ওই বীর মুক্তিযোদ্ধাকে পিটিয়ে হত্যা করা হয়।

এ ঘটনায় বীর মুক্তিযোদ্ধার ছেলে হাবিব খান বাদী হয়ে শনিবার ১১ জনের নাম উল্লেখ করে বাসাইল থানায় হত্যা মামলা করেন। মামলার পর দুপুরে মটরা এলাকা থেকে হত্যা মামলার এজাহারভুক্ত দুই আসামি লিটন (৪০) ও উজ্জ্বলকে (৩৮) গ্রেফতার করে পুলিশ। পরে আদালতের মাধ্যমে তাদের কারাগারে পাঠানো হয়।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানায়, কয়েক দিন ধরে মুক্তিযোদ্ধা লতিফ খানের সঙ্গে প্রতিবেশী আবু খান ও তার ছেলে পাভেল এবং পারভেজের পুকুরের মাছ নিয়ে বিরোধ চলে আসছিল।

বিষয়টি মীমাংসার জন্য স্থানীয় ইউপি সদস্য শাহজাহান খানের বাড়ির উঠানে শুক্রবার বিকেলে সালিশের আয়োজন করা হয়। সালিশের মধ্যে কথাকাটাকাটির জেরে আবু খান, পাভেল ও পারভেজসহ কয়েকজন যুবক লতিফ খানকে পিটিয়ে ও গলাটিপে আহত করেন।

স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে টাঙ্গাইল জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন। পরে বীর মুক্তিযোদ্ধার ছেলে হাবিব খান বাদী হয়ে হত্যা মামলা করেন।

হাবলা ইউনিয়ন পরিষদের ৪ নম্বর ওয়ার্ডের সদস্য শাহজাহান খান বলেন, তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে দুই পক্ষকে নিয়ে সালিশ বৈঠকে বসা হয়। একপর্যায়ে দুই পক্ষ ক্ষিপ্ত হয়ে সংঘর্ষে জড়ায়। এ সময় দুই পক্ষেরই কয়েকজন আহত হন। ওই বীর মুক্তিযোদ্ধাকে আহত অবস্থায় হাসপাতালে নিয়ে গেলে মৃত্যু হয়।

বাসাইল থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) হারুনুর রশিদ বলেন, বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল লতিফ খান হত্যার ঘটনায় বাাসাইল থানায় একটি মামলা হয়েছে। মামলার দুই আসামিকে গ্রেফতার করে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে। বাকি আসামিদের গ্রেফতারের চেষ্টা অব্যাহত আছে।

আরিফ উর রহমান টগর/এএম/জেআইএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]