নড়াইলে আ.লীগের সংঘর্ষ : ৭১ জনকে আসামি করে মামলা

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি নড়াইল
প্রকাশিত: ০৮:৫২ এএম, ১৬ নভেম্বর ২০২০
ফাইল ছবি

নড়াইলের কালিয়ায় আওয়ামী লীগের দু’গ্রুপের সমর্থকদের সংঘর্ষে রায়হান ফকির (২৫) নিহতের ঘটনায় ৭১ জনকে আসামি করে হত্যা মামলা দায়ের হয়েছে।

ঘটনার ৪ দিন পর শনিবার (১৪ নভেম্বর) রাতে নিহতের মা কহিনুর বেগম বাদী হয়ে মামলাটি করেন। মামলায় নড়াগাতী থানা যুবলীগের যুগ্ম সম্পাদক, সাবেক চেয়ারম্যান ও দুই মেম্বারসহ ৭১ জনকে আসামি করা হয়েছে।

উপজেলার নড়াগাতী থানার কলাবাড়ীয়া ইউনিয়নের চেয়ারম্যান ও জেলা আওয়ামী লীগ নেতা মাহমুদুল হাসান কায়েস সমর্থিত সবুর ফকির গ্রুপ ও নড়াইল-১ আসনের এমপি সমর্থিত মান্নান-মিল্টন গ্রুপের মধ্যে স্থানীয় আধিপত্য বিস্তার নিয়ে ১০ নভেম্বর কলাবাড়ীয়া ইউপি ও বাঐশোনা ইউপির বর্ডার মূলখানা মাদরাসা সংলগ্ন এলাকায় এ সংঘর্ষ হয়।

এ সময় রায়হান ফকির (২৫) নিহত হন। তিনি উপজেলার কলাবাড়ীয় ইউপির মূলখানা গ্রামের ফায়েক ফকিরের ছেলে ও সবুর ফকির গ্রুপের সমর্থক ছিলেন।

ঘটনাস্থল থেকে মান্নান-মিল্টন গ্রুপের মূলখানা গ্রামের জালাল সিকদার ও কলাবড়ীয়া গ্রামের আলামিন শেখকে পুলিশ আটক করে। এছাড়া আর কোন আসামী গ্রেফতার হয়নি। এ হত্যা মামলায় নড়াগাতী থানা যুবলীগের যুগ্ম সম্পাদক হাফিজুর রহমাম দীপু, কলাবাড়ীয়া ইউপির সাবেক চেয়ারম্যান হাফিজুর রহমান মন্নু, দুই ইউপি সদস্য শের আলী শেখ ও সোহেলসহ ৭১ জনকে আসামি করা হয়েছে।

উপজেলার নড়াগাতী থানার ওসি রোকসানা খাতুন বলেন, নিহতের মা কহিনুর বেগম বাদী হয়ে শনিবার রাতে মামলা করেন। পরিস্থিতি এখন শান্ত। আসামিদের আটকের চেষ্টা অব্যাহত আছে।

হাফিজুল নিলু/এফএ/জেআইএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]