আমি হাওরের মানুষ : পরিকল্পনামন্ত্রী

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি সুনামগঞ্জ
প্রকাশিত: ০৯:০২ এএম, ১৭ নভেম্বর ২০২০

পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান বলেছেন, বর্তমান সরকার পিছিয়ে পড়া জনগোষ্ঠীর মুখে হাসি ফোটানোর লক্ষ্যে কাজ করছে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দেশের পিছিয়ে থাকা অঞ্চল ও জনগোষ্ঠীকে উন্নয়নের মূল স্রোতধারায় নিয়ে যেতে আমরা কাজ করছি।

তিনি বলেন, ‘আমি হাওরের মানুষ। ছোটবেলায় দেখেছি হাওরের মানুষ বিশুদ্ধপানি ও স্যানিটেশন নিয়ে কত কষ্ট করে। তাই হাওর এলাকার জন্য বিশুদ্ধপানি সরবরাহ প্রকল্প গ্রহণ করা হয়েছে। এখন থেকে দেশে পানির সংকট থাকবে না। গ্রামে গ্রামে আমরা পানি পৌঁছে দিতে কাজ শুরু করেছি।’

তিনি আরও বলেন, সুনামগঞ্জ জেলা শহর থেকে ২০ কিলোমিটার দূরে একটি জায়গায় বিশ্ববিদ্যালয়ের জন্য প্রস্তাব করেছি। ওই এলাকায় সুনামগঞ্জের ২৫ লাখ মানুষের মধ্যে ২০ লাখ মানুষের সুবিধা। এছাড়া এতে কোনো ফসলিজমি নষ্ট হবে না। মাটির খরচ হবে কম। এসব বিবেচনায় আমরা কাজ করছি।

সোমবার (১৬ নভেম্বর) বিকেলে অনলাইন ভিডিও কনফারেন্সিং অ্যাপ জুমের মাধ্যমে সুনামগঞ্জের জগন্নাথপুর পৌরসভায় উন্নয়ন প্রকল্পের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে যোগ দিয়ে এসব কথা বলেন এম এ মান্নান।

অনুষ্ঠানে মন্ত্রী পৌর এলাকায় ৫০ কোটি টাকা ব্যয়ে ২৫ কিলোমিটার পাইপলাইনের মাধ্যমে পানি সরবরাহ ট্রিটমেন্ট প্লান্ট ওভারহেড ট্যাংক ও ড্রেনেজ নির্মাণকাজ এবং গভীর নলকূপ টুইন-পিট ল্যাট্রিন বিতরণের উদ্বোধন করেন।

জগন্নাথপুরের উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মেহেদী হাসানের সভাপতিত্বে ও শিক্ষক সাইফুল ইসলামের পরিচালনায় এ সভায় বক্তব্য দেন জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি সিদ্দিক আহমেদ, জনস্বাস্থ্য প্রকৌশল অধিদফতর সুনামগঞ্জের নির্বাহী প্রকৌশলী আবুল কাশেম, জগন্নাথপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আকমল হোসেন, সাধারণ সম্পাদক রেজাউল করিম, পরিকল্পনামন্ত্রীর রাজনৈতিক সচিব হাসনাত হোসাইন, জগন্নাথপুর উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান বিজন কুমার দেব, জগন্নাথপুর পৌরসভার মেয়র মিজানুর রশিদ ভূঁইয়া, জগন্নাথপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ইখতিয়ার উদ্দিন চৌধুরী, প্যানেল মেয়র সফিকুল হক, উপজেলা যুবলীগের সভাপতি কামাল উদ্দিন, উপজেলা ছাত্রলীগ সভাপতি সাফরোজ ইসলাম প্রমুখ।

লিপসন আহমেদ/বিএ/জেআইএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]