‘জিন ভর করায়’ ১৭ দিনের মেয়েকে পুকুরে ফেলে দেন মা

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি বাগেরহাট
প্রকাশিত: ০২:৫৩ পিএম, ২৮ নভেম্বর ২০২০

বাগেরহাটের মোরেলগঞ্জে ১৭ দিনের শিশু সানজিদাকে পুকুরে ফেলে হত্যার কথা স্বীকার করেছেন তার মা শান্তা আক্তার। শুক্রবার (২৭ নভেম্বর) পুলিশ শান্তা আক্তারকে জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে হাজির করলে তিনি হত্যার দায় স্বীকার করে জবানবন্দি দেন। পরে আদালতের বিচারক সমীর মল্লিক তাকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন।

শনিবার (২৮ নভেম্বর) মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা মোরেলগঞ্জ থানা পুলিশের ওসি (তদন্ত) ঠাকুর দাশ মন্ডল বলেন, শুক্রবার পুলিশের জিজ্ঞাসাবাদে শান্তা আক্তার তার মেয়েকে নিজেই বিছানা থেকে নিয়ে পুকুরে ফেলে দেন বলে স্বীকার করেন। তার ওপর ‘জিন ভর করায়’ তিনি এই কাজ করেছেন বলে জানান। এ ঘটনার পর শান্তাকে গ্রেফতার দেখিয়ে আদালতে পাঠানো হয়। সেখানেও শান্তা আক্তার নিজের ওপর ‘জিন ভর করায়’ তার শিশুকন্যাকে পুকুরে ফেলে হত্যার কথা স্বীকার করেন।

উল্লেখ, বাগেরহাটের মোরেলগঞ্জে ঘুমন্ত মা-বাবার পাশ থেকে গত রোববার (১৫ নভেম্বর) ১৭ দিন বয়সী শিশু চুরির ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় সোমবার রাতে শিশুটির দাদা মো. আলী হোসেন খান বাদী হয়ে অজ্ঞাতদের আসামি করে মোরেলগঞ্জ থানায় মামলা করেন। তিনদিন পর নিজ বাড়ির পুকুরে শিশুটির মরদেহ পাওয়া যায়।

এ ঘটনার পর শিশুটির বাবা সুজন খানকে (২৮) আটক করা হয়। এ অবস্থায় ঘটনার ১২দিন পর শুক্রবার শিশুটির মা শান্তা আক্তার (২২) পুলিশের কাছে মেয়েকে হত্যার কথা স্বীকার করেন।

শওকত বাবু/আরএআর/এমকেএইচ

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]