মেয়ের ফাঁসি, মায়ের যাবজ্জীবন

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি কিশোরগঞ্জ
প্রকাশিত: ০৪:১২ পিএম, ২৯ নভেম্বর ২০২০

কিশোরগঞ্জে স্কুলছাত্র তোফায়েল হত্যা মামলার রায়ে এক নারীকে ফাঁসি অপর নারীকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। দণ্ডপ্রাপ্তরা মা-মেয়ে। মাকে যাবজ্জীবন আর মেয়েকে ফাঁসির রায় দেয়া হয়েছে।

একই সঙ্গে দণ্ডপ্রাপ্তদের এক লাখ টাকা করে জরিমানা করা হয়েছে। কিশোরগঞ্জের অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক (প্রথম) মুহাম্মদ আব্দুর রহিম রোববার (২৯ নভেম্বর) দুপুরে এ রায় দেন। যাবজ্জীবন দণ্ডপ্রাপ্ত মা রিনা আক্তার আদালতে উপস্থিত থাকলেও ফাঁসির দণ্ডপ্রাপ্ত তার মেয়ে জুয়েনা আক্তার পলাতক।

মামলার অপর আসামি (১২) অপ্রাপ্তবয়স্ক হওয়ায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালে তার বিচার চলমান। দণ্ডপ্রাপ্তরা কিশোরগঞ্জ শহরের বত্রিশ এলাকার দুলাল ভূঁইয়ার স্ত্রী ও কন্যা।

মামলার নথি থেকে জানা যায়, ২০১২ সালের ১০ মার্চ শহরের বত্রিশ এলাকায় পূজা দেখতে গিয়ে রিনা আক্তারের ছেলে রাসেল ভূঁইয়ার সঙ্গে একই এলাকার বাসিন্দা আজিম উদ্দিন উচ্চ বিদ্যালয়ের অষ্টম শ্রেণির ছাত্র তোফায়েলের কথাকাটাকাটি হয়।

এ সময় তোফায়েলকে লাঠি দিয়ে পিটিয়ে আহত করেন আসামিরা। গুরুতর অবস্থায় তোফায়েলকে কিশোরগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালে নেয়া হয়। পরে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হলে চিকিৎসাধীন অবস্থায় পরদিন তার মৃত্যু হয়।

এ ঘটনায় তোফায়েলের বাবা আওলাদ হোসেন বাদী হয়ে একই বছরের ১১ মার্চ কিশোরগঞ্জ সদর থানায় তিনজনকে আসামি করে হত্যা মামলা করেন।

মামলার তদন্ত কর্মকর্তা পুলিশের এসআই আহসান হাবীব তদন্ত শেষে আসামিদের বিরুদ্ধে আদালতে অভিযোগপত্র দেন। দীর্ঘ শুনানি শেষে মামলার রায় দেন বিচারক।

নূর মোহাম্মদ/এএম/পিআর

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]