প্রতিবন্ধীদের উপার্জনের সুব্যবস্থা করতে হবে : প্রতিমন্ত্রী

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি মেহেরপুর
প্রকাশিত: ০৯:৩৫ পিএম, ১৪ জানুয়ারি ২০২১

জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী ফরহাদ হোসেন বলেছেন, প্রতিবন্ধীরা আমাদের বোঝা নয়, তাদের সম্মান ও সহমর্মিতার চোখে দেখতে হবে।

বৃহস্পতিবার (১৪ জানুয়ারি) বিকেলে মেহেরপুরে জাতীয় প্রতিবন্ধী উন্নয়ন ফাউন্ডেশন কর্তৃক প্রদত্ত হুইল চেয়ার ও হিয়ারিং এইড বিনা মূল্যে প্রতিবন্ধী ব্যক্তিদের মাঝে বিতরণ করা হয়। ওই অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় তিনি একথা বলেন। মেহেরপুর জেলা প্রশাসন এবং প্রতিবন্ধী সেবা ও সাহায্য কেন্দ্র এ অনুষ্ঠানের আয়োজন করে।

জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী বলেন, ‘প্রতিবন্ধীদের বোঝা না ভেবে সম্পদে পরিণত করতে হবে। তারা যদি স্বাবলম্বী হতে পারে তাহলে পরিবার ও সমাজের জন্য গুরুত্বপূর্ণ অবদান রাখতে পারে। এজন্য তাদের অর্থনৈতিকভাবে স্বাবলম্বী করে গড়ে তুলতে হবে। তাদের উপার্জনের সুব্যবস্থা করতে হবে। সরকারি প্রতিষ্ঠানগুলোর পাশাপাশি সামাজিক প্রতিষ্ঠানগুলোকেও এজন্য আন্তরিকভাবে কাজ করতে হবে।’

তিনি বলেন, ‘অনেক সময় পরিবেশ দূষণের কারণে প্রতিবন্ধী শিশুর জন্ম হয়। সেজন্য পরিবেশ দূষণের বিষয়ে সতর্ক থাকতে হবে। যত্রতত্র গড়ে ওঠা ইটভাটাগুলো পরিবেশ দূষণের অন্যতম কারণ। আমাদের পরিবেশবান্ধব ইটভাটা স্থাপন করতে হবে। এগুলো যাতে লোকালয় থেকে দূরে স্থাপন করা হয় তা নিশ্চিত করতে হবে।’

‘গর্ভবতী মায়ের পুষ্টির অভাবেও প্রতিবন্ধী শিশু জন্ম নিতে পারে। তাই নারীরা যাতে পুষ্টিকর খাবার খায়, সে বিষয়টি নিশ্চিত করতে হবে।’

‘মেহেরপুরের মানুষ যাতে উন্নত জীবনযাপন করতে পারে, সেজন্য আমরা কাজ করে যাচ্ছি। আমরা আর্থ-সামাজিক উন্নয়নের মডেল হিসেবে মেহেরপুরকে প্রতিষ্ঠা করতে চাই। এজন্য সবাইকে একযোগে কাজ করতে হবে’- বলেন জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী।

মেহেরপুর জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ মুনসুর আলম খানের সভাপতিত্বে পুলিশ সুপার এস এম মুরাদ আলি, সিভিল সার্জন ডা. মোহাম্মদ নাসির উদ্দিন, সরকারি কৌঁসুলি (পিপি) অ্যাডভোকেট পল্লব ভট্টাচার্য অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন। প্রতিবন্ধী সেবা ও সাহায্য কেন্দ্রের প্রতিবন্ধী বিষয়ক কর্মকর্তা তুলসি কুমার পাল অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন।

আসিফ ইকবাল/এসআর/জিকেএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]