সার্জেন্টকে মেরে ফেলতে চেয়েছিল হামলাকারী: আরএমপি কমিশনার

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি রাজশাহী
প্রকাশিত: ০৪:৩০ পিএম, ১৯ জানুয়ারি ২০২১

রাজশাহীতে মোটরসাইকেলের কাগজপত্র দেখার সময় হামলার শিকার ট্রাফিক পুলিশের সার্জেন্টকে হত্যার চেষ্টা করা হয়েছিল বলে জানান রাজশাহী মহানগর পুলিশের (আরএমপি) কমিশনার আবু কালাম সিদ্দিক।

মঙ্গলবার (১৯ জানুয়ারি) দুপুরে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ট্রাফিক সার্জেন্ট বিপুল কুমারকে দেখতে গিয়ে তিনি এ কথা বলেন।

পুলিশ কমিশনার বলেন, ‘ডাক্তার বলেছেন, হাত ভেঙে গেছে। বুকে ফ্র্যাকচার হয়েছে। সার্জেন্ট তার দায়িত্ব পালন করার সময় একটা অবৈধ মোটরসাইকেল আটকানোর পরে তার কাগজপত্র চাইলে তিনি উত্তেজিত হয়’।

তিনি আরও বলেন, ‘পার্শ্ববর্তী কাঠের দোকান থেকে তিনি কাঠ এনে বেদম মারপিট করে। আমাদের সার্জেন্ট পালানোর চেষ্টা করেছিলেন। তারপর সিএনজিতে উঠলে তখনও মেরেছে। তার উদ্দেশ্য ছিল- সার্জেন্টকে মেরে ফেলা’।

তিনি বলেন, আমরা তার নাম-ঠিকানা পেয়েছি। তার মোটরসাইকেলও জব্দ করেছি। এর সঙ্গে কোনো কাগজপত্র নেই।

এ বিষয়ে কঠোর আইনি ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে বলেও জানিয়েছেন আরএমপি কমিশনার আবু কালাম সিদ্দিক।

এর আগে দুপুর ১টার দিকে রাজশাহী মহানগরীর বিলশিমলা ঐতিহ্য চত্বরে ট্রাফিক সার্জেন্ট বিপুলের ওপর হামলার ঘটনা ঘটে। পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য দুজনকে আটক করে।

এসএমএম/জেআইএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]