দুই প্রার্থীর সমর্থকদের সংঘর্ষে পুলিশসহ আহত শতাধিক

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি বরগুনা
প্রকাশিত: ০২:২৫ পিএম, ২৭ জানুয়ারি ২০২১

বরগুনার পাথরঘাটা পৌরসভা নির্বাচনকে কেন্দ্র করে আওয়ামী লীগ প্রার্থী আনোয়ার আকন ও স্বতন্ত্র প্রার্থী মোস্তাফিজুর রহমান সোহেলের সমর্থকদের সংঘর্ষে পুলিশ-সাংবাদিকসহ প্রায় শতাধিক আহত হয়েছে।

এ ঘটনায় ২৫০-৩০০ জনকে অজ্ঞাত আসামি করে পাথরঘাটা থানায় মামলা দায়ের করেছে পুলিশ। একইসঙ্গে জাহাঙ্গীর খান ও রাসেল খান নামে দু’জনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

বুধবার (২৭ জানুয়ারি) দুপুর একটার দিকে সহকারী পুলিশ সুপার (পাথরঘাটা সার্কেল) মো. তোফায়েল আহমেদ বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

জানা যায়, পাথরঘাটা পৌরসভা নির্বাচনে থানার সামনে থেকে স্বতন্ত্র প্রার্থী মোস্তাফিজুর রহমান সোহেল তার সমর্থকদের নিয়ে পাথরঘাটা পৌর শহরে মিছিল নিয়ে বের হলে নৌকার সমর্থকরা বাধা দেন। পরে নৌকা সমর্থক ও স্বতন্ত্র সমর্থকদের ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া শুরু হয়।

এর কিছুক্ষণ পরে নারিকেল মার্কার মিছিল নিয়ে তালতলা একলা থেকে প্রায় ৫ শতাধীক নারী ও পুরুষ দেশীয় অস্ত্র রামদা, রড, জিআর পাইপ ও লাঠিসোটা নিয়ে পুলিশ ও সাংবাদিকদের ওপর হামলা করে।

পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে পুলিশ ৫০ রাউন্ড ফাঁকা গুলি ও টিয়ারসেল নিক্ষেপ করে মিছিলকারীদের ছত্রভঙ্গ করে দেয়।

এ ঘটনায় পাথরঘাটা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. শাহাবুদ্দিন, ওসি (তদন্ত) সাঈদ আহমেদ, পাথরঘাটা উপজেলা প্রেস ক্লাবের সভাপতি ইমাম হোসেন নাহিদ ও যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদ রাকিব বিন ত্বোহাসহ পুলিশ ও দু‘পক্ষের কর্মীরা আহত হন। পরে পুলিশ ২৫০-৩০০ জনকে আসামি করে মামলা করে।

পাঘরঘাটা থানার ওসি মো. শাহাবুদ্দিন জানান, সরকারি কাজে বাধা দান এবং পুলিশের ওপর হামলার ঘটনায় অজ্ঞাত ২৫০-৩০০ জনকে আসামি করে পুলিশ বাদী হয়ে মামলা করেছে। হামলাকারীদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

এফএ/এমকেএইচ

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]