ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় চিকিৎসা নিয়ে বাকবিতণ্ডা, হাসপাতাল ভাঙচুর

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি ব্রাহ্মণবাড়িয়া
প্রকাশিত: ০৩:৩৭ এএম, ২৭ ফেব্রুয়ারি ২০২১

চিকিৎসা নিয়ে বাকবিতণ্ডার জেরে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সরাইল উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে রোগীর স্বজনদের বিরুদ্ধে হামলা চালানোর অভিযোগ উঠেছে। শুক্রবার (২৬ ফেব্রুয়ারি) সন্ধ্যা ৭টার দিকে এই ঘটনা ঘটে।

সরাইল থানা পুলিশের উপ-পরিদর্শক (এসআই) জাকির হোসেন খন্দকার জানান, শুক্রবার সন্ধ্যায় উপজেলার নোয়াগাঁও ইউনিয়নের তেরকান্দা গ্রামের আতাহার আলীর মেয়ে চৈতী আক্তার একটি পাগলা মহিষের হামলায় গুরুতর আহত হয়। রক্তাক্ত অবস্থায় তাকে সরাইল উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসেন স্বজনরা। এ সময় হাসপাতালের জরুরি বিভাগের কর্তব্যরত স্টাফদের সাথে রোগীর স্বজনদের বাকবিতণ্ডা হয়। এরই জেরে স্বজনরা হাসপাতালের জরুরি বিভাগের চেয়ার-টেবিল ভাঙচুর করে। এই ঘটনায় হাসপাতাল থেকে একটি লিখিত অভিযোগ দেয়া হয়েছে।

jagonews24

সরাইল উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা মো. নোমান মিয়া বলেন, ৮-১০ জন এসে হাসপাতালের জরুরি বিভাগে হামলা চালান। তারা জরুরি বিভাগের কক্ষের চেয়ার, টেবিলসহ আসবাবপত্র ভাঙচুর করেন। তারা ওই শিশু রোগীর সঙ্গে আসা ব্যক্তি বলে সন্দেহ করা হচ্ছে। হামলাকারীদের কয়েকজনকে শনাক্ত করেছে। তাদের বাড়ি উপজেলার নোয়াগাঁও ইউনিয়নের তেরকান্দা গ্রামে।

তিনি আরও বলেন, এ ঘটনায় হাসপাতালের স্টাফরা হামলাকারীদের ২৪ ঘণ্টার মধ্যে গ্রেফতারের আল্টিমেটাম দিয়েছেন। তা নাহলে রোগীদের চিকিৎসা সেবা দেয়া বন্ধের ঘোষণা দিয়েছেন তারা।

এমএসএইচ

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]