বিরোধের জেরে ট্রাকচালককে গুলি, অস্ত্রসহ আটক ১

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি চুয়াডাঙ্গা
প্রকাশিত: ০৬:৫৯ পিএম, ২৭ ফেব্রুয়ারি ২০২১

চুয়াডাঙ্গায় পূর্ব বিরোধের জেরে সাচ্চু রহমান (৪০) নামে এক ট্রাকচালককে গুলি করেছে প্রতিপক্ষরা। গুলিবিদ্ধ অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে জেলা সদর হাসপাতালে নেয়া হয়েছে। তার অবস্থা আশঙ্কাজনক বলে জানিয়েছেন কর্তব্যরত চিকিৎসক।

শনিবার (২৭ ফেব্রুয়ারি) বিকেল সাড়ে ৪টার দিকে চুয়াডাঙ্গা বাস টার্মিনাল এলাকায় এই ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় অভিযুক্ত বাকের আলীকে আটক করেছে পুলিশ। তার কাছ থেকে উদ্ধার করা হয়েছে ৬ রাউন্ড তাজা গুলি ও একটি ম্যাগজিন।

স্থানীয়রা জানান, বেশ কিছু দিন থেকে নুরনগর কলোনির বাসিন্দা দুই ভাই শাকের (৩৫) ও বাকেরের (২৮) সঙ্গে টাকা লেনদেন সংক্রান্ত বিষয় নিয়ে ট্রাকচালক সাচ্চু রহমানের বিরোধ চলে আসছিল। এর এক পর্যায়ে আজ বিকেলে চুয়াডাঙ্গা বাস টার্মিনালে ট্রাক নিয়ে দাঁড়িয়ে থাকা অবস্থায় সাচ্চুকে গুলি করে পালিয়ে যান দুই ব্যক্তি। এতে গুরুতর জখম হন সাচ্চু। পরে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে নেয়া হয়।

সদর হাসপাতালের চিকিৎসক সার্জারি বিভাগের সিনিয়র কনসালটেন্ট ডা. ওয়ালিউর রহমান নয়ন জানান, সাচ্চু রহমানের তল পেটের বাম দিকে একটি গুলিবিদ্ধ রয়েছে। তার অবস্থা খুবই আশঙ্কাজনক। তাই তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে রেফার করা হয়েছে।

এ বিষয়ে চুয়াডাঙ্গা সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবু জিহাদ ফকরুল আলম খান জানান, ঘটনার পর নুরনগর এলাকার একটি ভুট্টা ক্ষেতে অভিযান চালিয়ে অভিযুক্ত বাকের আলীকে আটক করা হয়েছে। তার কাছ থেকে উদ্ধার করা হয়েছে ছয় রাউন্ড গুলি ও একটি ম্যাগজিন। অভিযুক্ত শাকের এখনও পলাতক রয়েছেন।

চুয়াডাঙ্গা পুলিশ সুপার জাহিদুল ইসলাম জানান, মূলত পূর্ব বিরোধের জেরেই ওই ঘটনা ঘটেছে। ঘটনার পর বাকেরকে আটক করা হয়েছে। পলাতক শাকেরকে ধরতে কাজ করছে জেলা পুলিশের একাধিক দল। অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে।

সালাউদ্দীন কাজল/এসজে/জিকেএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]