তরুণীর মরদেহ হাসপাতালে ফেলে রেখে পালালেন স্বজনরা

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি ব্রাহ্মণবাড়িয়া
প্রকাশিত: ০৯:৩৮ পিএম, ০৩ মার্চ ২০২১
ফাইল ছবি

ব্রাহ্মণবাড়িয়া ২৫০ শয্যাবিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালে হেনা বেগম (২০) নামের এক তরুণীর মরদেহ ফেলে রেখে পালিয়ে গেছেন স্বজনরা। বুধবার (৩ মার্চ) সন্ধ্যা ৭টার দিকে হাসপাতালের জরুরি বিভাগে এ ঘটনা ঘটে।

হাসপাতালের রেজিস্টারে ওই তরুণীর পরিচয় লেখা রয়েছে, জেলার নাসিরনগর উপজেলার পুকিরদিয়া গ্রামের শাহজাহান মিয়ার স্ত্রী।

জরুরি বিভাগের স্টাফরা জানান, সন্ধ্যায় এক নারী ও দুজন পুরুষ হেনা আক্তার নামের এক তরুণীকে জরুরি বিভাগে নিয়ে আসেন। এসময় তারা নিজেদের ওই তরুণীর স্বজন পরিচয় দিয়ে জানান, তিনি চালের পোকা নিধনের কীটনাশক খেয়ে আত্মহত্যার চেষ্টা করেছেন। পরে কর্তব্যরত চিকিৎসক ওই তরুণীকে দেখে মৃত ঘোষণা করেন। এরপর থেকে তরুণীর সঙ্গে আসা ওই নারী ও দুই ব্যক্তিকে খুঁজে পাওয়া যাচ্ছে না।

জরুরি বিভাগের কর্তব্যরত চিকিৎসক আরিফুজ্জামান হিমেল বলেন, ‘ওই তরুণীকে নিয়ে আসার পর স্টাফরা জানালে আমি তাকে দেখি। কিন্তু হাসপাতালে নিয়ে আসার আধঘণ্টা আগেই তিনি মারা যান বলে ধারণা করা হচ্ছে।’

ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আব্দুর রহিম বলেন, ‘আমরা লাশ ফেলে যাওয়ার বিষয়টি লোক মারফত জানতে পেরেছি। হাসপাতালে পুলিশ পাঠানো হয়েছে।’

এসআর/জিকেএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]