ঝালকাঠিতে বাড়ছে ডায়রিয়ার প্রকোপ, খালি নেই হাসপাতালের বেড

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি ঝালকাঠি
প্রকাশিত: ০৬:১০ পিএম, ১০ এপ্রিল ২০২১

হঠাৎ করে ঝালকাঠিতে ডায়রিয়ার প্রকোপ বেড়েছে। ডায়রিয়ার উপসর্গ নিয়ে গত এক সপ্তাহে হাসপাতালে ভর্তি হয়ে চিকিৎসা নিচ্ছে শিশুসহ কয়েকশত রোগী। জেলা সদর হাসপাতালসহ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সগুলোতেও হঠাৎ ডায়রিয়ার রোগী বেড়ে যাওয়ায় সেবা দিতে হিমশিম খাচ্ছেন চিকিৎসক ও নার্সরা।

ঝালকাঠি সদর হাসপাতালের তথ্যমতে, গত এক সপ্তাহে ডায়রিয়া আক্রান্ত হয়ে ভর্তি হয়েছেন ২২৫ জন রোগী। প্রতিদিন শতাধিক ডায়রিয়ার রোগী চিকিৎসা নিচ্ছেন সদর হাসপাতাল থেকে। জেলার হাসপাতালগুলোতে চাহিদার তুলনায় সরবরাহ কম থাকায় স্যালাইন ও ওষুধ বাইরে থেকে কিনতে হচ্ছে রোগীদের।

সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, ঝালকাঠি সদর হাসপাতালের ডায়রিয়া ওয়ার্ডে ১৩টি বেড থাকলেও রোগী রয়েছে ৪৫ জন। বিছানায় স্থান সংকুলান না হওয়ায় মেঝেতে চিকিৎসা নিতে হচ্ছে অনেক রোগীকে। জায়গা না পেয়ে কেউ কেউ শুধু কলেরার স্যালাইন পুশ করেই বাসায় চলে যাচ্ছেন।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে ঝালকাঠি সদর হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডাক্তার জাফর আলী দেওয়ান জানান, ঋতু পরিবর্তন ও খাবারে অনিয়ম করার কারণে ডায়রিয়ার প্রকোপ বেড়েছে বলে ধারণা করা হচ্ছে। স্থান সংকুলান না হওয়ায় বাধ্য হয়ে কিছু রোগীকে মেঝেতে রেখে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে। হঠাৎ করে প্রকোপ বৃদ্ধি পাওয়ায় স্যালাইন এবং ওষুধের জন্য চাহিদাপত্র প্রেরণ করা হয়েছে। শিগগিরই স্যালাইন ও ওষুধ এসে যাবে।’

ঝালকাঠি সদর হাসপাতালের ডায়রিয়া ওয়ার্ডে স্থান না হওয়ায় বারান্দায় রোগীদের চিকিৎসা।

মো. আতিকুর রহমান/এসজে/এএসএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]