শিশু তাওহিদের ভ্যানটিও ছিনিয়ে নিল দুর্বৃত্তরা

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি নাটোর
প্রকাশিত: ০৫:২৪ পিএম, ১১ এপ্রিল ২০২১

বাবা নূর আলী ইটভাটায় কাজ করেন। তবে তার একার আয় দিয়ে সংসার ভালোভাবে চলে না। তাইতো হাতে কলম তুলে নেয়ার বয়সে ভ্যানের হ্যান্ডেল ধরেছে ১৫ বছরের শিশু তাওহিদ। এই শিশুটির ভ্যানও ছিনতাই করে নিল দুর্বৃত্তরা।

নাটোরের বড়াইগ্রাম উপজেলার জোনাইল ইউনিয়নের মেরিভিটা গ্রামে শিশু তাওহিদ হোসেনের ব্যাটারিচালিত ভ্যান ছিনিয়ে নিয়েছে দুই দুর্বৃত্ত। ভ্যান নিতে তাওহিদকে চেতনানাশক ওষুধ খাওয়ানো হয়। বর্তমানে সে জোনাইল ও আর খান মেমোরিয়াল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন।

শনিবার (১০ এপ্রিল) সন্ধ্যায় এ ঘটনা ঘটে।

শিশু তাওহিদ বলে, ‘শনিবার সন্ধ্যায় জোনাইল পাগলাবাজার ব্রিজ থেকে জোনাইল কলেজে যাওয়ার কথা বলে এক লোক আমার ভ্যানে ওঠেন। কলেজে পৌঁছানোর পর লোকটি জানান, তিনি বনপাড়া বাজারে কিছু খাবার বিক্রি করেছেন। খাবারের মূল্য আদায়ের জন্য ওই ভ্যানেই তিনি বনপাড়া যেতে চান। ৩০০ টাকা ভাড়া দেয়ার কথা বলে তিনি আমাকে নিয়ে বনপাড়া রওনা দেন। বনপাড়া পৌঁছানোর পর টাকা দেয়ার কথা বলে তিনি আমাকে মোটরসাইকেলে চড়া দুই লোকের কাছে টাকা নিতে পাঠান। তাদের কাছে গেলে তারা আমাকে জনশূন্য একটি জায়গায় নিয়ে যান এবং একটি বোতলে থাকা পানি খেতে বলেন। আমি খেতে না চাইলে তারা জোর করে মুখ চেপে ধরে ওই পানি খাওয়ান। এরপর আর আমার কিছু মনে নেই। চেতনা ফিরে দেখি পুলিশ আমাকে থানায় নিয়ে এসেছে। পরে তারা আমাকে হাসপাতালে ভর্তি করে।’

বড়াইগ্রাম থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. আনোয়ারুল ইসলাম ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, শিশুটিকে উদ্ধারের পর চিকিৎসা দেয়া হয়েছে। বর্তমানে সে হাসপাতালেই আছে। তার ভ্যান উদ্ধারের চেষ্টা চলছে। ঘটনার সঙ্গে যারা জড়িত, তাদের শনাক্ত ও আইনের আওতায় আনা হবে।

এসআর/জিকেএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]