মাঝনদীতে ফেরিতে অগ্নিকাণ্ডের কারণ জানতে মাঠে তদন্ত টিম

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি ভোলা
প্রকাশিত: ০৮:২০ পিএম, ১৫ এপ্রিল ২০২১

মেঘনা নদীতে ভোলা-লক্ষ্মীপুর রুটে চলাচলকারী ‘কলমীলতা’ নামে একটি ফেরিতে অগ্নিকাণ্ডের কারণ অনুসন্ধানে মাঠে নেমেছে তদন্ত টিম।

বৃহস্পতিবার (১৫ এপ্রিল) দুপুরে পাঁচ সদস্যের একটি টিম সরেজমিনে তদন্ত করে।

এতে ছিলেন- ভোলা অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক সুজিত হাওলাদার, সড়ক ও জনপথ বিভাগের (সওজ) নির্বাহী প্রকৌশলী নাজমুল ইসলাম, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) মহসিন আল ফারুক, ভোলা ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্সের উপ-পরিচালক ফারুক হোসেন ও ভোলা বিআইডব্লিউটিএ’র সহকারী পরিচালক কামরুজ্জামানের পক্ষে ফেরি ম্যানেজার মো. পারভেজ খান।

এ সময় তারা বিভিন্ন তথ্য সংগ্রহ করে এবং দুর্ঘটনা কবলিত ফেরিতে গিয়ে মাস্টারসহ আটজনের বক্তব্য নেয়।

ভোলা অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক সুজিত হাওলাদার বলেন, ‘আমরা ৮ এপ্রিল থেকে তদন্ত কার্যক্রম শুরু করেছি। আগামী এক-দুদিনের মধ্যে তদন্ত প্রতিবেদন দাখিল করা হবে।’

৮ এপ্রিল গভীর রাতে লক্ষ্মীপুর জেলার মজুচৌধুরী ঘাট থেকে ভোলার ইলিশা ফেরিঘাটের উদ্দেশে রওনা হয় কলমীলতা নামে ফেরিটি। বিকেল সাড়ে ৪টার দিকে ভোলা সদর উপজেলার ভোলার চর এলাকার মেঘনা নদীতে ফেরিতে আগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটে।

এতে দুটি বড় ট্রাক, চারটি কাভার্ডভ্যান, দুটি পিকআপ ভ্যান ও একটি মোটরসাইকেল সম্পূর্ণ পুড়ে যায়। খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিস, কোস্টগার্ড ও নৌ পুলিশ সদস্য কয়েকঘণ্টা চেষ্টা চালিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে।

জুয়েল সাহা বিকাশ/এসজে/এমকেএইচ

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]