ঝালকাঠিতে ডায়রিয়ার প্রকোপ : দুই হাজার স্যালাইন দিলেন আমু

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি ঝালকাঠি
প্রকাশিত: ০৭:৫০ পিএম, ১৯ এপ্রিল ২০২১

 

ঝালকাঠিতে প্রতিদিনই বাড়ছে ডায়রিয়া আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা। ভয়াবহ ডায়রিয়া পরিস্থিতি মোকাবিলায় শরীরে পুশ করার আইভি স্যালাইন সংকট থাকায় হিমশিম খাচ্ছে স্বাস্থ্য বিভাগ। এই যখন অবস্থা তখন চিকিৎসকরা স্যালাইন সহায়তা চেয়ে অফিশিয়াল ফেসবুক পেজে সহায়তার জন্য আবেদনও করেন।

সেই আবেদনে সাড়া দিয়ে সোমবার (১৯ এপ্রিল) বিকেলে ব্যক্তিগত উদ্যোগে ঝালকাঠিতে দুই হাজার আইভি স্যালাইন দান করলেন শিল্পমন্ত্রণালয় বিষয়ক সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি, ১৪ দলের মুখপাত্র ও সমন্বয়ক আমির হোসেন আমু। এরমধ্যে এক হাজার ঝালকাঠি সদর হাসপাতালের জন্য এবং বাকি আরেক হাজার নলছিটি উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের জন্য দেয়া হয়েছে বলে জানিয়েছেন এই সংসদ সদস্য।

এর আগে রোববার (১৮ এপ্রিল) সন্ধ্যায় নলছিটি উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের জন্য ব্যক্তিগতভাবে এক হাজার আইভি স্যালাইন দান করেন বিশিষ্ট ব্যবসায়ী ও এমখান গ্রুপের চেয়ারম্যান মাহফুজ খান। অপরদিকে রাজাপুর উপজেলায় এক প্রবাসী ৩০০ এবং আরেক প্রবাসী ১০০ আইভি স্যালাইন দান করেন সোমবার বিকেলে।

জেলা স্বাস্থ্য বিভাগ সূত্রে জানা গেছে, করোনার মধ্যে তীব্র গরমে হঠাৎ করে ডায়রিয়ার প্রকোপ দেখা দিয়েছে। প্রতিদিনই বাড়ছে ডায়রিয়া আক্রান্তের সংখ্যা। গত ২৪ ঘণ্টায় জেলায় ৬ শতাধিক মানুষ আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হন। হাসপাতালের নির্দিষ্ট বিছানায় স্থান না পেয়ে ফ্লোরে বিছানা করে চিকিৎসা নিতে হচ্ছে আক্রান্তদের। তবে ফ্লোরে এবং বারান্দায় বিছানা দিয়ে চিকিৎসার পরিবেশ নেই বলেও অভিযোগ স্বজনদের।

jagonews24

ডায়রিয়া আক্রান্তদের বেশিরভাগই নারী, শিশু ও বয়স্ক। নেই স্যালাইন, বিছানা। এ কারণে অনেকেই হাসপাতালে প্রাথমিক চিকিৎসা নিয়ে বাড়িতে চলে গেছেন। ভয়াবহ এ পরিস্থিতিতে রাজাপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডা. আবুল খায়ের মাহমুদ রাসেল রোববার রাত ৯টায় তার অফিশিয়াল ফেসবুক পেজে স্যালাইন সংকটের কথা উল্লেখ করে বিত্তবানদের সহায়তার জন্য অনুরোধ জানিয়ে তিনি লেখেন, ‘প্রিয় রাজাপুরবাসী, আসসালামু আলাইকুম। কয়েকদিন যাবত ডায়রিয়া তীব্র আকার ধারণ করেছে। হাসপাতালের ফ্লোরে ও রোগী রাখার জায়গা নেই। ভয়ের কথা হচ্ছে যারা আসছে তারা তীব্র পানিস্বল্পতা নিয়ে আসছে। তাদের প্রায় সকলকে আইভি স্যালাইন লাগাতে হচ্ছে। এতো স্যালাইন হাসপাতালের সরবরাহ নেই। আর যারা রোগী তারা বেশিরভাগ গরিব। তাই এ সংকটে আপনাদের সকলের কাছে সাহায্য চাচ্ছি। যে যতটুকু সম্ভব স্যালাইন দিয়ে রোগীদের চিকিৎসায় সহায়তা করুন। ১৮/৪/২০২১ তারিখ রাত আটটা পর্যন্ত ৫৩ জন ডায়রিয়ার রোগী ভর্তি হয়েছেন। হাসপাতালের জন্য বরাদ্দ স্যালাইন ও লকডাউনের কারণে আনা সম্ভব হচ্ছে না। বাজে কোনো মন্তব্য করার আগে হাসপাতালে এসে ডাক্তার, নার্সদের কর্মযজ্ঞ দেখে যাবেন।’

সিভিল সার্জন ডা. রতন কুমার ঢালী জানান, ঝালকাঠির ডায়রিয়া পরিস্থিতি সামাল দিতে পর্যাপ্ত আইভি স্যালাইন প্রয়োজন। এমন পরিস্থিতির খবর শুনে এমপি আমির হোসেন আমু আমাদের দুই হাজার আইভি স্যালাইন দিয়েছেন। এছাড়া বেশ কয়েকজনে আইভি স্যালাইন দিয়েছেন, যা এই মুহূর্তে আমাদের অনেক কাজে আসবে।

সংসদ সদস্য আমির হোসেন আমু বলেন, ডায়রিয়া পরিস্থিতিতে স্যালাইন সংকটের কথা শুনে আমি ঝালকাঠি সদর হাসপাতাল ও নলছিটি উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে দুই হাজার স্যালাইন দিয়েছি। হাসপাতালে যাতে পর্যাপ্ত স্যালাইন সরবরাহের ব্যবস্থা করা হয় সেজন্য স্বাস্থ্যমন্ত্রীর সঙ্গে কথাও বলেছি। আশা করি, দ্রুতই এ সমস্যার সমাধান হবে।

মো আতিকুর রহমান/এসআর/এমকেএইচ

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]