আধিপত্য বিস্তার নিয়ে দু’গ্রুপের সংঘর্ষ, আ.লীগ নেতা আহত

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি কুষ্টিয়া
প্রকাশিত: ০৮:৪৪ পিএম, ১৯ এপ্রিল ২০২১

আধিপত্য বিস্তার নিয়ে কুষ্টিয়ার কুমারখালীতে দু’গ্রুপের সংঘর্ষে ফারুক আল আজম হান্নান নামে স্থানীয় এক আওয়ামী লীগ নেতা গুরুতর জখম হয়েছেন।

সোমবার (১৯ এপ্রিল) বিকেলে উপজেলার জগন্নাথপুর ইউনিয়নে চর জগন্নাথপুর ব্রিজ এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, কুষ্টিয়ার কুমারখালী জগন্নাথপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ও ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি ফারুক আহমেদ খানসহ চারজন দুটি মোটারসাইকেলযোগে চর জগন্নাথপুর এলাকায় যাচ্ছিলেন। এ সময় জগন্নাথপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ফারুক আল আজম হান্নান ও আব্দুল্লাহ আল বাকি বাদশার নেতৃত্বে ৮-৯টি মোটরসাইকেলে ১৫-২০ জন লোক এসে ফারুক আহমেদ খানকে ও তার পরিবারের সদস্যদের নামে গালিগালাজ করতে থাকেন।

ফারুক আহমেদ খান এর প্রতিবাদ করায় তার ওপর ফারুক আল আজম হান্নান ও আব্দুল্লাহ আল বাকি বাদশাসহ তার লোকজন চড়াও হন। ফারুক আহমেদ খান অবস্থা বেগতিক দেখে লোকজন নিয়ে একই ইউনিয়নের তার গ্রামের বাড়ি মহেন্দ্রপুরের ফিরে আসেন।

পরবর্তীতে ফারুক খানের আত্মীয় স্বজন ও তার সমর্থকরা খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে ফারুক আল আজম হান্নান ও আব্দুল্লাহ আল বাকি বাদশাকে ঘিরে ফেলে। এ সময় ফারুক আহমেদ খানের সমর্থকরা বিক্ষুব্ধ হয়ে ফারুক আল আজম হান্নানকে মারধর করে। পরে গুরুতর আহত অবস্থায় হান্নানকে উদ্ধার করে কুমারখালী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়।

এ ঘটনার পর হাসিমপুর বাজারের ফারুক খান সমর্থক নূর আলম জিকুর তিনটি দোকানে ভাঙচুর চালিয়ে লুটপাট করে এবং একই এলাকার আমিরুলের বাড়িতেও হামলা চালায়।

এ ব্যাপারে কুমারখালী থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মজিবুর রহমান বলেন, ‘এলাকার আধিপত্য বিস্তার নিয়ে এ হামলার ঘটনা ঘটেছে। তদন্ত করে এ বিষয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।’

আল-মামুন সাগর/এসজে/এএসএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]