কৃষকদের উদ্দেশে ইউএনওর স্ট্যাটাস, ২৪ ঘণ্টায় ৩৪ কৃষকের ফোন

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি নোয়াখালী
প্রকাশিত: ০৪:১৫ পিএম, ২২ এপ্রিল ২০২১

লকডাউনে শ্রমিক সংকটে পাকা ইরি (বোরো) ধান কাটতে না পারা কৃষকদের সহযোগিতায় ফেসবুকে একটি স্ট্যাটাস দিয়েছেন নোয়াখালীর কোম্পানীগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মো. জিয়াউল হক মীর।

মঙ্গলবার (২০ এপ্রিল) দুপুর ১টা ৪৩ মিনিটে স্ট্যাটাসটি দেন ইউএনও।

তিনি লেখেন, ‘কোম্পানীগঞ্জে ইরি (বোরো) ধান কাটতে শ্রমিক সংকট বা অন্য কোনো সমস্যা থাকলে সংশ্লিষ্টদেরকে উপজেলা নির্বাহী অফিসারের সাথে যোগাযোগ করার জন্য অনুরোধ করা হলো। ০১৭০৫৪০১১০৬।’

ইউএনও জিয়াউল হক মীর বৃহস্পতিবার (২২ এপ্রিল) সকালে জানান, স্ট্যাটাসটি দেয়ার ২৪ ঘণ্টায় তাকে ৩৪ জন কৃষক ফোন দিয়ে সাহায্য চেয়েছেন। তিনি তিনটি ধান কাটার অত্যাধুনিক হার্ভাস্টার মেশিন দিয়ে তাদের সহায়তা করছেন।

উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা মো. বেলাল হোসেন জানান, কৃষকদের চাহিদার কারণে আরও দুটি হার্ভাস্টার মেশিন আনা হয়েছে। কৃষকরা যাতে ফসল ঘরে তুলতে কোনো সমস্যার সম্মুখীন না হন, সেজন্য উপজেলা প্রশাসন ও কৃষি অধিদফতর কাজ করছে।

উল্লেখ্য, নোয়াখালীর কোম্পানীগঞ্জ উপজেলার এক পৌরসভা ও আট ইউনিয়নে এবার পাঁচ হাজার ৭৮০ হেক্টর জমিতে ইরি (বোরো) ধানের চাষ হয়েছে।

এসআর/জিকেএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]