ঝিনাইদহে বাড়তি দামে সয়াবিন তেল বিক্রি করায় জরিমানা

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি ঝিনাইদহ
প্রকাশিত: ০৪:৫৭ পিএম, ২৩ এপ্রিল ২০২১

ঝিনাইদহে চলমান রমজান মাসে বাজার নিয়ন্ত্রণে সরকার নির্ধারিত মূল্যের চেয়ে বেশি দামে ব্যারেলজাত খোলা সয়াবিন তেল বিক্রি করায় ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযান পরিচালিত হয়েছে। এসময় মেসার্স লক্ষী ভান্ডারের মালিক অশোক কুমার সাহাকে ১০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।

শুক্রবার (২৩ এপ্রিল) দুপুর ১২টার দিকে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদফতর, জেলা প্রশাসন ও তথ্য অফিসের যৌথ উদ্যোগে এ অভিযান পরিচালিত হয়। এসময় নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট জিন্নাতুল ইসলাম, ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদফতরের সহকারী পরিচালক সুচন্দন মণ্ডল, জেলা তথ্য অফিসার আবু বক্কর সিদ্দিক উপস্থিত ছিলেন।

ভ্রাম্যমাণ আদালতের বিচারক ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট জিন্নাতুল ইসলাম জানান, পবিত্র রমজান মাসে সয়াবিন তেলের দাম নিয়ন্ত্রণে জেলার বিভিন্ন স্থানে নিয়মিত অভিযান পরিচালিত হচ্ছে। এরই পরিপ্রেক্ষিতে শহরের অন্যতম পাইকারি সয়াবিন তেল বিক্রয়কারী প্রতিষ্ঠান লক্ষী ভান্ডারে অভিযান পরিচালনা করা হয়। এসময় দেখা যায়, দোকান মালিক সরকার নির্ধারিত ১১৫ টাকা (লিটার) পাইকারি মূল্যের চেয়ে ৩ টাকা বেশি দামে খুচরা বিক্রেতাদের কাছে তেল বিক্রি করছেন। পাশাপাশি মূল্য তালিকাও সঠিক নয়। ফলে দোকান মালিককে ১০ হাজার টাকা অর্থদণ্ড করা হয়।

jagonews24

তিনি আরও জানান, অনেক দিন আগে থেকেই লক্ষী ভান্ডারের মালিককে সতর্ক করা হচ্ছিল। কিন্তু তিনি এ নির্দেশ অমান্য করে বেশি দামে তেল বিক্রি অব্যাহত রেখেছিলেন এবং কোনো ভাউচারও দিচ্ছিলেন না ক্রেতাদের।

ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদফতরের সহকারী পরিচালক সুচন্দন মণ্ডল ও জেলা তথ্য অফিসার আবু বক্কর সিদ্দিক বলেন, আমাদের কাছে খবর ছিল ভোক্তাদের কাছে নির্ধারিত খুচরা মূল্য ১১৭ টাকার পরিবর্তে ১২০ টাকা দরে প্রতি লিটার সয়াবিন তেল বিক্রি করা হচ্ছে। এমন অভিযোগে সত্যতা মেলায় শৈলকুপা উপজেলার ভাটই বাজারে তিনটি দোকান মালিককে ৮ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।

আব্দুল্লাহ আল মাসুদ/এসআর/জেআইএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]