বৃদ্ধকে মারলেন মেয়র, তিনিও খেলেন চড়-থাপ্পড়

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি নোয়াখালী
প্রকাশিত: ০৫:১৮ পিএম, ২৩ এপ্রিল ২০২১

এক বৃদ্ধকে চড়-থাপ্পড় মেরে নিজেও লাঞ্ছিত হয়েছেন নোয়াখালীর কবিরহাট পৌরসভার মেয়র জহিরুল হক রায়হান। বুধবার (২১ এপ্রিল) বেলা ১২টার দিকে পৌরসভা ১ নম্বর ওয়ার্ডের এনায়েত নগরের ডাক্তার বাড়ির দরজায় এ ঘটনা ঘটে। শুক্রবার (২৩ এপ্রিল) লাঞ্ছনার শিকার ওই বৃদ্ধের ছোট ভাই সারোয়ার ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেন।

ওই বৃদ্ধের নাম শামসুল হক (৭০)। তিনি ওই এলাকার মৃত মোস্তফা মিয়ার ছেলে।

শামসুল হকের ছোট ভাই সারোয়ার শুক্রবার বিকেলে ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, ‘খাল খনন নিয়ে ভুল বোঝাবুঝির পর তার বড় ভাইয়ের সঙ্গে এ ঘটনা ঘটেছে। পরে বিষয়টি মীমাংসা করে দেয়া হয়েছে।’

স্থানীয় প্রত্যদর্শীরা জানান, করমবক্স-কবিহাটের খাল খননের তদারকি করছেন মেয়রের লোকজন। বুধবার ডাক্তার বাড়ির সামনে শামসুল হকের বেড়া সরিয়ে খাল খনন করতে গেলে তার সঙ্গে পৌরসভার কর্মচারী কামালের কথা-কাটাকাটি হয়। খবর পেয়ে সেখানে যান মেয়র জহিরুল হক রায়হান। তিনি কারো কথা না শুনে বৃদ্ধ শামসুল হককে চড়-থাপ্পড় মারেন এবং গালিগালাজ করেন। এসময় শামসুল হকসহ তার লোকজনও মেয়রের কলার চেপে ধরে চড়-থাপ্পড় মেরে লাঞ্ছিত করেন।

এ ব্যাপারে মেয়র জহিরুল হক রায়হান জাগো নিউজকে বলেন, ‘পানি নিষ্কাশনের খাল খননে কেউ বাধা দিলে তো আমি বসে থাকতে পারি না। বাকিটা স্থানীয়ভাবে খবর নেন।’

কবিরহাট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) টমাস বড়ুয়া বলেন, ‘এ বিষয়ে কেউ কোনো অভিযোগ করেননি। অভিযোগ পেলে তদন্ত করে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।’

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) হাসিনা আক্তার জাগো নিউজকে বলেন, তিনি বিষয়টি খোঁজ নেবেন।

এসআর/জেআইএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]