বরগুনায় পরিপক্ব হওয়ার আগেই ঝরে পড়ছে আম-জাম-লিচু

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি বরগুনা
প্রকাশিত: ০৩:২৮ পিএম, ০১ মে ২০২১

বৈরী আবহাওয়া ও প্রচণ্ড দাবদাহে বরগুনার তালতলী উপজেলার নদী-নালা শুকিয়ে গেছে। অনাবৃষ্টিতে মাঠ-ঘাট ফেটে চৌচির হয়ে গেছে। গাছের মাটি শুকিয়ে পরিপক্ব হওয়ার আগেই স্থানীয় জাতের আম, জাম ও লিচু ঝরে পড়ছে। এতে হতাশ হয়ে পড়েছেন চাষি ও বাগান মালিকরা।

কৃষি বিভাগের কর্মকর্তারা বলছেন, বৈরী আবহাওয়া ও কাঙ্ক্ষিত বৃষ্টিপাত দীর্ঘায়িত হলে এসব ফলের অপূরণীয় ক্ষতি হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে।

কৃষি অফিস সূত্রে জানা গেছে, তালতলী উপজেলায় প্রায় ২৫০ হেক্টর জমিতে বিভিন্ন জাতের আম, জাম ও লিচুসহ অন্যান্য ফলের বাগান রয়েছে। মৌসুমের শুরুতে রেকর্ড পরিমাণ আম, জাম ও লিচুসহ অন্যান্য ফলের উৎপাদনের প্রত্যাশা করা হয়েছিল। কিন্তু বৈরী আবহাওয়া ও কাঙ্ক্ষিত বৃষ্টি না হওয়ায় সে প্রত্যাশা ফিকে হয়ে গেছে। প্রতিকূল আবহাওয়ায় যেমন গাছের ফলগুলো বেড়ে ওঠা থমকে গেছে, তেমনি মাটিতে রস না থাকায় নির্বিচারে ফলগুলো ঝরে পড়ছে।

jagonews24

উপজেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদফতরে উপসহকারী কৃষি কর্মকর্তা (উদ্ভিদ সংরক্ষণ) আবু সালেহ জাগো নিউজকে বলেন, ‘বৈরী আবহাওয়া ও কাঙ্ক্ষিত বৃষ্টি না হওয়ায় বিভিন্ন গাছের ফল ঝড়ে পড়ছে। চাষি ও বাগান মালিকদের গাছগুলো পানি দিয়ে ভিজিয়ে দেয়ার পরামর্শ দেয়া হয়েছে।

উপজেলা কৃষি অফিসার সিএম রেজাউল করিম বলেন, ‘বৈরী আবহাওয়া ও কাঙ্ক্ষিত বৃষ্টিপাত দীর্ঘায়িত হলে এসব ফলের অপূরণীয় ক্ষতি হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে।’

এসজে/এমকেএইচ

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]