সোমালিয়ায় চাঁদ দেখার সংবাদে চাঁদপুরে কয়েকটি গ্রামে ঈদ উদযাপন

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি চাঁদপুর
প্রকাশিত: ০২:২৫ পিএম, ১২ মে ২০২১ | আপডেট: ০২:২৬ পিএম, ১২ মে ২০২১

চাঁদ দেখার সংবাদে চাঁদপুরের কয়েকটি গ্রামে উৎসবমুখর পরিবেশে উদযাপিত হচ্ছে পবিত্র ঈদুল ফিতর। এ উপলক্ষে হাজীগঞ্জের সাদ্রা দরবার শরীফ জামে মসজিদে সকাল ১০টায় ঈদের জামাত অনুষ্ঠিত হয়। জামাতে ইমামতি করেন বর্তমান পীর মুফতি আল্লামা যাকারিয়া চৌধুরী আল মাদানী।

এসময় মুসল্লিরা ঈদের জামাতে অংশ নেন। পরে ক্রমান্বয়ে আরও দু-একটি গ্রামে ঈদের জামাত অনুষ্ঠিত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে। তবে পুরো সাদ্রা গ্রামে বৃহস্পতিবার (১৩ মে) ঈদ উদযাপিত হবে বলে জানা গেছে।

চাঁদপুরের হাজীগঞ্জ, ফরিদগঞ্জ, মতলব, কচুয়া ও শাহরাস্তিসহ পাঁচ উপজেলার প্রায় ৪০টি গ্রাম প্রতিবছর সৌদি আরবের সঙ্গে সমন্বয় রেখে ঈদ উদযাপন করে।

jagonews24

সাদ্রা ছাড়াও একদিন আগে রোজা ও ঈদ উদযাপন করা গ্রামগুলো হচ্ছে-হাজীগঞ্জ উপজেলার বলাখাল, শ্রীপুর, মনিহার, বরকুল, অলীপুর, বেলচোঁ, রাজারগাঁও, জাকনি, কালচোঁ, মেনাপুর; ফরিদগঞ্জ উপজেলার শাচনমেঘ, খিলা, উভারামপুর, পাইকপাড়া, বিঘা, উটতলী, বালিথুবা, শোল্লা, রূপসা, গোয়ালভাওর, কড়ইতলী, নয়ারহাট, মতলবের মহনপুর, এখলাসপুর, দশানী, নায়েরগাঁও, বেলতলীসহ বেশ কয়েকটি গ্রাম।

পীর মুফতি আল্লামা জাকারিয়া চৌধুরী আল মাদানি বলেন, ‘১৯২৮ সাল থেকে মুফতি আল্লামা ইসহাক (রহ.) কর্তৃক প্রতিষ্ঠিত চাঁদপুর জেলার সার্দ্রা ঐতিহাসিক দরবার শরীফের ধর্মপ্রাণ মুসলমানরা সর্বপ্রথম নবচঁন্দ্র দর্শনের নিভরযোগ্য সংবাদের ভিত্তিতে প্রতিবছরই ঈদুল ফিতর, ঈদুল আজাহাসহ ধর্মীয় সব উৎসব উদযাপন করে থাকেন। তারই ধারাবাহিকতায় বুধবার সকাল দশটায় আমাদের ঈদের জামাত অনুষ্ঠিত হয়েছে।’

আজকের ঈদ উদযাপনের বিষয়ের প্রশ্ন করলে দরবারের বড় পীরজাদা ড. মুফতি বাকী বিল্লাহ মিসকাত চৌধুরী বলেন, ‘মঙ্গলবার সোমালিয়া, নাইজার (নাইজেরিয়া) ও পাকিস্তানে চাঁদ দেখা গেছে। নির্ভরযোগ্য ভিত্তিতে ওই সংবাদ পেয়ে হানাফি মাজহাবের চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত মোতাবেক আজ আমরা ঈদুল ফিতর উদযাপন করছি।’

আরব দেশগুলোর সঙ্গে সঙ্গতি রেখে প্রতি বছর চাঁদপুর জেলার তিনটি উপজেলার ৪০ গ্রামে ঈদুল ফিতর উদযাপিত হয়। সাদ্রা দরবার শরিফের অনুসারীরা ৯২ বছর ধরেই প্রথম চাঁদ দেখার ভিত্তিতে সাদ্রাসহ ৪০টি গ্রামে ঈদ উদযাপন করে থাকেন।

এছাড়া চাঁদপুরের পাশের নোয়াখালী, লক্ষ্মীপুর, ভোলা ও শরীয়তপুর জেলার কয়েকটি স্থানে মাওলানা ইছহাক খানের অনুসারীরা একদিন আগে ঈদ উদযাপন করেন।

jagonews24

ঈদের জামাত শেষে দেশের শান্তি কামনায় মোনাজাত অনুষ্ঠিত হয়।

এদিকে মঙ্গলবার নাইজেরিয়া, সোমালিয়াসহ আফ্রিকার বেশ কয়েকটি রাষ্ট্রে শাওয়াল মাসের চাঁদ দেখা গেছে বলা হলেও এ তথ্যের সত্যতা পাওয়া যায়নি।

নাইজেরিয়ান সংবাদমাধ্যম দ্য ক্যাবল-এর খবরে বলা হয়েছে, মঙ্গলবার নাইজেরিয়ার কোথাও শাওয়াল মাসের চাঁদ দেখা যায়নি। এজন্য বুধবারও রোজা পালন করবেন নাইজেরিয়ানরা। বৃহস্পতিবার দেশটিতে ঈদুল ফিতর উদযাপিত হবে। নাইজেরিয়ান সুপ্রিম কাউন্সিল ফর ইসলামিক অ্যাফেয়ার্স (এনএসসিআইএ) এ ঘোষণা দিয়েছে। এছাড়া বাকি ছয়টি দেশেও ঈদ উদযাপনের সত্যতা পাওয়া যায়নি।

নজরুল ইসলাম আতিক/এসআর/এমকেএইচ

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]