পণ্যবাহী ট্রাকে ঈদযাত্রা!

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি সিরাজগঞ্জ
প্রকাশিত: ০২:৩৪ পিএম, ১২ মে ২০২১

ট্রাকে পণ্য নেই আছে ঠাসাঠাসি করে বসা মানুষ। সবাই খুঁজছে গন্তব্যে যাওয়ার বাহন। হোক সেটা পণ্যবাহী ট্রাক, মাইক্রোবাস কিংবা মোটরসাইকেল। বাড়ি যেতে হবেই।

এদিকে গাড়ির প্রচণ্ড চাপের কারণে বঙ্গবন্ধু সেতু গোলচত্বর থেকে হাটিকুমরুল গোলচত্বর পর্যন্ত মহাসড়কের বিভিন্ন জায়গায় ছোট ছোট যানযটের সৃষ্টি হওয়ায় মোতায়েন করা হয়েছে বাড়তি পুলিশ।

বৈশ্বিক মহামারি করোনার সংক্রমণ বেড়ে যাওয়ায় সরকার ঘোষিত বিধিনিষেধের মধ্যে দূরপাল্লার আন্তঃজেলার বাসগুলো বন্ধ থাকায় বাধ্য হয়েই পণ্যবাহী ট্রাকে ঝুঁকি নিয়ে ঈদযাত্রা করেছে মানুষ।

track

বুধবার (১২ মে) সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত এমন চিত্রই দেখা গেছে বঙ্গবন্ধু সেতু পশ্চিমপাড়ে। সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত ঢাকা-নারায়ণগঞ্জসহ দেশের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে পণ্যবাহী ট্রাকে করে গ্রামে ফিরছে মানুষ। সেই লড়াইয়ে বাদ যায়নি নারী-শিশুরাও। পরিবারের সবার সঙ্গে ট্রাকের এক কোণে একটুখানি জায়গা করে নিতে হয়েছে শিশুদের।

ঘরমুখো মানুষের চাপে বঙ্গবন্ধু সেতুর পশ্চিম সংযোগ মহাসড়কে যানবাহনের সারি পড়েছে। কেউ কেউ ভেঙে ভেঙে পণ্যবাহী ট্রাক, মাইক্রোবাস, পিকআপ ভ্যান, সিএনজিচালিত অটোরিকশায় গ্রামে ছুটছেন।

track

বঙ্গবন্ধু সেতু পশ্চিম গোলচত্বর থেকে হাটিকুমরুল পর্যন্ত ২২ কিলোমিটার মহাসড়কের বিভিন্ন স্পটে সৃষ্টি হচ্ছে ছোট ছোট যানজট। বাস, ট্রাক, পিকআপ, প্রাইভেটকার, অ্যাম্বুলেন্স, মাইক্রোবাস, মোটরসাইকেল ও তিন চাকার যানবাহনে যে যেভাবে পারছে, পরিবারের সঙ্গে ঈদ করতে বাড়ি ফিরছে। বিশেষ করে রাজধানীতে পণ্য পরিবহণ করে ফেরা ট্রাকে গাদাগাদি করে বাড়ি ফিরছে মানুষ। তবে মহাসড়কে গাড়ির চাপ থাকলেও কোনো যানজট নেই।

সাভার থেকে ট্রাকযোগে আসা তাসলিমা আক্তার জানান, বাসের আশায় দীর্ঘ সময় বসে ছিলাম। বাস পাইনি। বাধ্য হয়ে ট্রাকে রওনা হয়েছি। ভাড়া বেশি না কম সেটা ভেবে কী লাভ? বাড়ি যেতে পারলেই স্বস্তি। পরিবারের সঙ্গে ঈদ করবো এটাই আনন্দ।

track

ট্রাক চালক জহুরুল ইসলাম ও আসাদুজ্জামান শেখ জানান, সিরাজগঞ্জ থেকে চাল নিয়ে রাতে ঢাকায় রওনা হই। সকালে ঢাকায় পৌঁছাই। চাল খালাসের পর দুপুরে গাবতলী-সাভার হয়ে বগুড়ায় রওনা দিয়েছি। হেমায়েতপুর পৌঁছলে ঘরমুখো মানুষ ট্রাকে উঠতে থাকে। সাভার বাাজার বাসস্ট্যান্ডে এসে পুরো ট্রাক মানুষে ভরে গেছে।

এ বিষয়ে বঙ্গবন্ধু সেতু পশ্চিম থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোসাদ্দেক হোসেন বলেন, মহাসড়কে সকাল থেকে কোনো যানজট নেই। তবে ট্রাক, পিকআপ ও মোটরসাইকেলে করে মানুষ ফিরছে।

ইউসুফ দেওয়ান রাজু/এএইচ/এমএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]