ঈদের দিনে আহত সেই তরুণ আইনজীবীকে বাঁচানো গেল না

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক বগুড়া
প্রকাশিত: ০৩:৪৬ এএম, ১৭ মে ২০২১
নিহত মুশফিকুর রহমান মিশুক। ছবি : সংগৃহীত

বগুড়ায় মোটরসাইকেল দুর্ঘটনায় আহত তরুণ আইনজীবী মুশফিকুর রহমান মারা গেছেন। রোববার (১৬ মে) সন্ধ্যার দিকে রাজধানীর সেন্ট্রাল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়।

মুশফিকুর রহমান মিশুক শহরের ঠনঠনিয়া দক্ষিণ পাড়ার মৃত আব্দুর রহমানের ছেলে। তিনি বগুড়া জজ কোর্টের তরুণ আইনজীবী ছিলেন।

এর আগে শুক্রবার (১৪ মে) ঈদের রাত সাড়ে ৮টার দিকে শহরের কলোনীর তাজমা সিরামিক কোম্পানি এলাকায় দুই মোটরসাইকেলের মুখোমুখি সংঘর্ষে মুশফিকুর গুরুতর আহত হন।

মুশফিকুরের বন্ধ শাফিনুর তান্নি জানান, শনিবার এয়ার অ্যাম্বুলেন্সে করে বগুড়া থেকে ঢাকার সেন্ট্রাল হাসপাতালে নেয়া হয়েছিল মুশফিকুর রহমানকে। দুর্ঘটনায় তার মস্তিষ্কে গুরুতর আঘাত লেগেছিল। এ জন্য তাকে আইসিইউতে রাখা হয়। কিন্তু তার শারীরিক অবস্থা বেশি খারাপ থাকায় চিকিৎসকরা অপারেশন করতে পারছিলেন না। রোববার সন্ধ্যার দিকে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মুশফিক মারা যান।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, শুক্রবার রাতে মুশফিকুর তার এক স্বজনকে নিয়ে মোটরসাইকেলে করে যাচ্ছিলেন। এ সময় রাস্তার বিপরীত দিক থেকে আসার আরেকটি মোটরসাইকেলের সঙ্গে মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়।

মেডিকেল ফাঁড়ির টিএসআই লালন জানান, এ দুর্ঘটনায় মুশফিকুরের স্বজন সাদ্দাম এবং অপর মোটরসাইকেলের চালক বান্না আহত হন। তবে তারা গুরুতর আহত না হওয়ায় প্রাথমিক চিকিৎসা নিয়ে মেডিকেল ছেড়েছেন।

জানা গেছে, মুশফিকুর রহমান মিশুক বগুড়া জিলা স্কুলের এসএসসি ২০০৭ ব্যাচের শিক্ষার্থী এবং স্কুলের অ্যালামনাই অ্যাসোসিয়েশনের সদস্য।

এএএইচ

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]