আম গাছ লাগানো নিয়ে বিতণ্ডায় বৃদ্ধাকে পিটিয়ে হত্যা

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি লালমনিরহাট
প্রকাশিত: ০৮:৩৭ এএম, ০৫ জুন ২০২১ | আপডেট: ০৮:৪১ এএম, ০৫ জুন ২০২১

লালমনিরহাটে জমিতে আম গাছ লাগানো নিয়ে বিতণ্ডায় খোতেজা বেওয়া (৬৩) নামের এক বৃদ্ধাকে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগ উঠেছে তার ভাসুর শামসুল হক ও তার পরিবারের বিরুদ্ধে।

এসময় নিহতের দুই ছেলে আহত হন। এ ঘটনায় কোহিনুর বেগম (২৮) নামের একজনকে আটক করে পুলিশের কাছে সোপর্দ করেছে এলাকাবাসী।

শুক্রবার (৪ জুন) বিকেল ৫টায় লালমনিরহাট সদর উপজেলার হারাটি ইউনিয়নের মধ্য হিরামানিক গ্রামে এ হত্যার ঘটনা ঘটে।

নিহত খোতেজা একই গ্রামের মৃত সোলায়মান আলীর স্ত্রী।

পুলিশ জানায়, শামসুল হক ও সোলায়মান আলী আপন ভাই। দীর্ঘদিন ধরে তাদের মধ্যে জমি নিয়ে বিরোধ চলে আসছিল। শুক্রবার বিকেলে বাড়ির পেছনে নিজ জমিতে নিহতের ছেলে আব্দুল মালেকের স্ত্রী খালেদা আক্তার আম গাছ লাগাতে গেলে তাতে বাধা দেন শামসুল।

এসময় বৃদ্ধা খোতেজা এগিয়ে এসে বলেন, ‘আমাদের জমিতে আমরা গাছ লাগাবো তোমরা বাধা দেয়ার কে?’ - এ কথা বলা মাত্রই খোতেজাকে শামসুল হকের উঠানে টেনে নিয়ে তার ছেলে-মেয়ে ও ছেলের বউ সকলে মিলে মারধর শুরু করেন। এসময় মাকে বাঁচাতে আব্দুল খালেক ও মালেক এগিয়ে গেলে তাদেরও মারধর করা হয়। এরপর খোতেজার মৃত্যু হলে তারা সবাই বাড়ি ছেড়ে পালিয়ে যান।

ঘটনা জানাজানি হলে স্থানীয়রা ও খোতেজার আত্মীয় স্বজন কোহিনুর নামের একজনকে আটক করে রাখেন এবং তাদের পুলিশের হাতে সোপর্দ করেন।

ঘটনার পর পরই অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (এ-সার্কেল) মারুফা জামান ও সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শাহা আলম ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন।

এ বিষয়ে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (এ-সার্কেল) মারুফা জামান বলেন, ‘খবর পেয়েই পুলিশ ঘটনাস্থলে এসেছে। প্রত্যক্ষদর্শীদের বক্তব্য নেয়া হয়েছে। ঘটনাস্থল থেকে একজনকে আটক করা হয়। ময়নাতদন্তের জন্য মরদেহ লালমনিরহাট সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে’।

রবিউল হাসান/এসএমএম/জেআইএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]